মাদারীপুরে গৃহবধূ হত্যা মামলায় স্বামীসহ ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর

মাদারীপুর সদর উপজেলার মাদ্রা গ্রামের শাহজাদী বেগম নামে এক গৃহবধু হত্যা মামলায় স্বামীসহ ৩জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শরীফ উদ্দিন আহমেদ এ আদেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর পৌরসভার রকেট বিড়ি এলাকার খালেক সরদারের ছেলে বাবু সরদারের সাথে একই উপজেলার মাদ্রা এলাকার শাহ আলম খানের মেয়ে শাহজাদী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক হয়। এই সম্পর্কে সূত্রে ধরে তারা বিয়ে করেন। বিয়ের তিন মাস পরেই শাহজাদী সন্তান প্রসব করে। এতে বাবু ধারনা করে বিয়ের আগে শাহজাদীর অন্যকারো সাথে শারীরিক সম্পর্ক ছিল। এনিয়ে উভয়ের মধ্যে ঝগড়া হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে শাহজাদীকে হত্যার পরিকল্পনা করে বাবু সরদার। বাবু, বাবুর বন্ধু নাইম চৌকিদার ও উজ্জল খান ৩ জন মিলে ২০১৩ সালে ২৮ জুলাই সন্ধ্যায় পরিকল্পিত ভাবে শাহজাদীকে হত্যা করে শরীর থেকে মাথা বিচ্ছিন্ন করে লাশ আড়িয়াল খা নদীতে ফেলে দেয়। ৯ আগষ্ট সদর উপজেলার বাহেরচর কাতলা গ্রামে অর্থগলিত ভাসমান অবস্থায় লাশ পাওয়া গেলে শাহজাদীর পরনের পোশাক দেখে লাশ শনাক্ত করা হয়। ১১ আগষ্ট নিহত শাহজাদীর মা নাছিমা বেগম বাদী হয়ে মাদারীপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলায় নিহতের স্বামী বাবু সরদার ও তার বাবা মাকে আসামি করা হয়। পরে পুলিশ তদন্তে বাবুর বাবা মা নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বাদ দিয়ে বাবুর বন্ধু নাইম ও উজ্জলের নাম অর্ন্তভূক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। বাবু আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে হত্যা কথা স্বীকার করে।

মাদারীপুর আদালতের পিপি এ্যাডভোকেট এমরান লতিফ বলেন, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ২০১৮ সালের ১৭ ডিসেম্বর মামলার চার্জশিট দেওয়ার পরে দীর্ঘদিন শুনানি শেষে মঙ্গলবার দুপুরে নিহতের স্বামীসহ তিনজনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply