রিকশা চালককে হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে রিকশা চালক মিজানুর রহমান হত্যা মামলায় রুহুল আমিন (৪০) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রাশেদা সুলতানা এ আদেশ দেন। এ সময় রুহুল আমিন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। দণ্ডপ্রাপ্ত রুহুল আমিন সাদুল্যাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের হামিন্দপুর গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে।

গাইবান্ধা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. শফিকুল ইসলাম শফিক এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, জামালপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর গ্রামের মফিজল হকের ছেলে মিজানুর রহমান (১৯) একজন রিকশা চালক। ব্যাটারী চালিত অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছিলো মিজানুর।

২০১৬ সালের ১৭ মার্চে প্রতিদিনের ন্যায় ওইদিন সকালে রিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন মিজানুর। এরপর গভীর রাতেও আর বাড়ি ফেরেনি মিজানুর। পরদিন ১৮ মার্চ সকালে বাড়ির অদুরে পাতিল্যাকুড়া সড়কের ধারের একটি বাঁশঝাড়ে মিজানুরের লাশ পড়ে থাকতে দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায় পুলিশ। মিজানুরের শরীরের অাঘাতের চিহ্ন পায় পুলিশ।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় ওই দিনেই সাদুল্যাপুর থানায় হত্যা মামলা করে মিজানুরের পরিবার। পরে তদন্তে হত্যার রহস্য ও রুহুল আমিনকে হত্যাকারী হিসেবে সনাক্ত করে পুলিশ। পুলিশের হাতে আটকের পর রুহুল আমিন অটোরিকশা ছিনতাই করে শ্বাসরোধে মিজানুরকে হত্যার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় আদালতে।

এরপর দীর্ঘ তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ। এ মামলার সকল সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে সোমবার বিকেলে আদালত রুহুল আমিনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply