প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদান আত্মসাৎ, ইউপি চেয়ারম্যান কারাগারে

|

নেত্রকোণা প্রতিনিধি:

চাল আত্মসাতের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় নেত্রকোণার কলমাকান্দার কৈলাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়াকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার বিকেলে জেলা ও দায়রা জজ কেএম রাশেদুজ্জামান রাজা জামিন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন। এর আগে ওই চেয়ারম্যান হাইকোর্টের নির্দেশে ২৮ দিনের জামিনে ছিলেন।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে দরিদ্রদের মধ্যে বিতরণের জন্য কলমাকান্দার কৈলাটি ইউনিয়নে দুই হাজার ৩৫৫জন ভিজিএফ কার্ডধারীদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ অনুদানের ৪৭ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রতিজনকে ২০ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা ছিলো।

গত ১৬ আগস্ট বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কার্ডধারীদের মধ্যে চাল বিতরণ শুরু হয়। কিন্তু পরিষদের চেয়ারম্যান রুবেল ভুঁইয়া সরকারি গুদাম থেকে সমস্ত চাল উত্তোলন করে প্রায় তিন শত জনের মধ্যে বিতরণ করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে বাকি চাল আত্মসাতের চেষ্টা করেন।

বিষয়টি টের পেয়ে ওই দিন রাত ১১টার দিকে তখনকার দায়িত্বে থাকা কলমাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান পরিষদে উপস্থিত হয়ে সাত মেট্রিক টন চাল জব্দ করে সিলগালা করেন। পরে অবশ্য ওই চাল ঈদের দুই দিন আগে ইউএনও কার্ডধারীদের মধ্যে বিতরণ করেন। ঘটনার পর দিন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা করেন।

এরপর গত ২৩ আগস্ট সদর উপজেলার কালিয়ারা গাবরাগাতী গ্রামের বাসিন্দা রাহমিন মিয়ার বাড়ি থেকে ওই ভিজিএফের আরও কিছু চাল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পরিষদের চেয়ারম্যান কিছু দিন পলাতক থেকে হাইকোর্ট থেকে ২৮ দিনের জামিনে ছিলেন।

সোমবার তার জামিনের মেয়াদ শেষ হলে এই দিন বিকেলে নিম্ন আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালতের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ কেএম রাশেদুজ্জামান রাজা তার জামিন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply