দ্বিতীয় তিস্তা সেতুর সংযোগ সড়ক সংস্কারের তোড়জোড়

|

পানির তীব্র স্রোতে ধসে যাওয়া লালমনিরহাটে নবনির্মিত দ্বিতীয় তিস্তা সেতুর সংযোগ সড়কটির মেরামত কাজ চলছে। উদ্বোধনের দুদিন আগে সেতুর সংযোগ সড়কের একাংশ ধসে পড়ে।

শেষ মুহূর্তে এসে সড়কের ৪০ ফুট ধসে যাওয়ায় দুশ্চিন্তায় সড়ক বিভাগের লোকজন। শুক্রবারই ক্ষতিগ্রস্ত অংশ সংস্কারের কাজ শুরু হয়েছে। তবে তা সময়মতো শেষ হবে কিনা, তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। রোববার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দ্বিতীয় তিস্তা সেতুর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রংপুর-দিনাজপুর গ্রামীণ অবকাঠামো প্রকল্পের আওতায় ২০১২ সালে শুরু হয় সেতুটির নির্মাণকাজ। ৮৫০ মিটার দৈর্ঘ্য ও সাড়ে ৯ মিটার প্রস্থের সেতু তৈরিতে সময় লেগে যায় ৬ বছর। ব্যয় হয় প্রায় ১২৩ কোটি টাকা।

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ ও রংপুরের গঙ্গাচড়াকে আলাদা করে রেখেছে তিস্তা নদী।
সেতুটি চালু হলে স্বল্প সময়ে বিভাগীয় শহরে যেতে পারবেন লালমনিরহাটবাসী। স্থলবন্দর বুড়িমারির সাথে রংপুরের দূরত্ব কমবে প্রায় ৪৪ কিলোমিটার।









Leave a reply