কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ছাত্রীর পেটে ছুরি ঢুকিয়ে দিলো বখাটে

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধুলাসর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে বখাটে নাঈমের ছুরিকাঘাতে গুরুতর জখম হয়েছে নবম শ্রেণির ছাত্রী তুলি আক্তার। শনিবার সকাল সাড়ে নয়টায় স্কুলের সামনে তুলিকে ছুরিবিদ্ধ করা হয়।

শিক্ষকসহ স্থানীয়রা তুলিকে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাৎক্ষণিক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিমে পাঠানো হয়েছে। বখাটে নাঈমকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।

প্রত্যাক্ষদর্শীরা জানায়, তুলি প্রতিদিনের মতো আজ সকালেও স্কুলে আসছিল। বখাটে নাঈম তাকে আগে থেকেই উত্যক্ত করত। ঘটনার সময় তার কুপ্রস্তাবে সম্মতি না দেয়ায় পেটে ছুরি ঢুকিয়ে দেয়। বখাটে নাঈম ও ছাত্রী তুলির বাড়ি ধুলাসার গ্রামে। শ্রমজীবী সলেমানের ছেলে নাঈম গেল বছর এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে।

কলাপাড়া হাসপাতালের চিকিৎসক জেএইচ খান লেনিন জানান, ছুরিটি পেটের মধ্যে গভীরে বিদ্ধ রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ৫/৬ ইঞ্চি গভীর ক্ষত হতে পারে। নাড়িভুরিতে গুরুতর ক্ষত রয়েছে। যেকারণে উন্নত চিকিৎসার জন্য তুলিকে বরিশাল শেবাচিমে প্রেরণ করা হয়েছে।

মহিপুর থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, নাঈমকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে।









Leave a reply