বিয়ের কথা বলে কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ৪

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি

পটুয়াখালীতে ১৭ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষনের ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো শহরের শিমুলবাগ এলাকার হানিফ মোল্লার ছেলে মিরাজ(১৭), একই এলাকার সানু সিকদারের ছেলে আরমান(২০), কলাতলা এলাকার আশরাফ আলীর ছেলে হাছিব(২০) এবং পিটিআই রোডের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে মারুফ রহমান তুষার (১৯)।

গত রবিবার রাতের ঘটনায় ভিকটিম বাদী হয়ে সদর থানায় বুধবার রাতে মামলা দায়ের করেন। পরে আসামীদের রাতেই গ্রেফতার করা হয়।

পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সদর উপজেলার বড় বিঘাই ইউনিয়নের জয়নাল চৌকিদারের ১৭ বছরের মেয়ের সাথে দীর্ঘদিন থেকে মোবাইল ফোনে মিরাজের সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলছিলো। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৬ আগষ্ট সন্ধ্যার পর শহরের পিটিআই রোডের জনৈক আনিস মিয়ার বাসার ২য় তলার একটি রুমে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মিরাজ তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় উপস্থিত মিরাজের তিন বন্ধুও কিশোরীকে ধর্ষণ করে।

ধর্ষণের পর ওই কিশোরীকে গত দুই দিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় রেখে বিবাহ না করায় কিশোরী পুলিশের কাছে যায় এবং বুধবার (৩০ আগষ্ট) রাতে সদর থানায় উপস্থিত হয়ে ধর্ষণের অভিযোগ এনে ওই চার জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পরে রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে চার জনকে গ্রেফতার করে জেলে পাঠায় এবং ভিকটিমের মেডিকেল রিপোর্ট সম্পন্ন করে।









Leave a reply