নিখোঁজের ১২ ঘণ্টা পর চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার

|

গাইবান্ধা প্রতিনিধি:

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় নিখোঁজের ১২ ঘণ্টা পর লিমন মিয়া (১০) নামে চতুর্থ শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার গেবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাইহাট ইউনিয়নের শীতল গ্রামের একটি বাঁশঝাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। লিমন গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাইহাট ইউনিয়নের শীতল গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে। সে শীতল গ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র ছিলো।

পুলিশ ও লিমনের পরিবার জানায়, সোমবার সন্ধ্যার দিকে লিমন বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। পরে বাড়ির লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পায়নি। সকালে গ্রামের একটি বাঁশ ঝাড়ে লিমনের গলাকাটা লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন বাঁশ ঝাড়ে গিয়ে লিমনের লাশ সনাক্ত করে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুজিবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা আধুনিক হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে কেন বা কি কারণে শিশু লিমনকে হত্যা করা হয়েছে তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এছাড়া হত্যার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। এঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply