রোহিঙ্গা নির্যাতনে মিয়ানমারের শীর্ষ সেনা কর্মকর্তাদের দায়ী করলো জাতিসংঘ

|

মিয়ানামারের রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর উপর গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দেশটির সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের অভিযুক্ত করেছে জাতিসংঘ। সোমবার জাতিসংঘ গঠিত স্বাধীন আন্তর্জাতিক ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশন তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

ওই তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়, গণহত্যা এবং মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে দেশটির সেনাপ্রধানসহ শীর্ষ ছয়জন সামরিক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্ত এবং বিচার হওয়া দরকার। গণহত্যা ঠেকাতে ব্যর্থ হওয়ায় তীব্র সমালোচনা করা হয় মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর ও শান্তিতে নোবেল জয়ী নেত্রী অং সান সুচির।

রাখাইনের পাশাপাশি শান ও কাচিন অঞ্চলেও সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ এনেছে জাতিসংঘ। প্রতিবেদনে বলা হয়, সামরিক প্রয়োজনে নির্বিচারে হত্যা, গণ-ধর্ষণ, শিশুদের উপর হামলা এবং পুরো গ্রাম জ্বালিয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। যা কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য হতে পারে না। এমনকি যে নিরাপত্তার অজুহাত দিয়ে রাখাইন রাজ্য হামলা চালানো হয়েছে সেই শঙ্কারও কোনো ভিত্তি নেই বলেও জানায় জাতিসংঘ।









Leave a reply