পাক সেনাপ্রধানের সাথে কোলাকুলি করায় সিধুর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা!

|

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে দেশটির সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সাথে কোলাকুলি করায় ভারতের সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান রাজনীতিবিদ নভজোত সিং সিধুর বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আজ সোমবার বিহারের মোজাফফরপুর জেলায় বিজেপি সমর্থক একজন আইনজীবী মামলাটি দায়ের করেন।

আইনজীবী সুদূর ওঝা মামলার বিবরণে বলেন, সিধুর আচরণ ভারতের জনগণের অনুভূতিতে আঘাত করেছে। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে আগামী সপ্তাহে শুনানির সময় নির্ধারণ করেছেন।

ইমরান খানের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে ভারত থেকে অতিথি ছিলেন সিধু। পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট বাসভবনে সেই অনুষ্ঠানে দেখা যায়, বাজওয়া নিজে এগিয়ে এসে সিধুকে জড়িয়ে ধরেন। অন্তত দুবার কোলাকুলি করেন তারা। ওই সময় হাসিমুখে তাদের বেশ কিছু কথাবার্তা আদানপ্রদান হয়।

সেই ছবি প্রকাশের পর থেকে ভারতের সামাজিক মাধ্যমে ঝড় উঠেছে। উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের একের পর আক্রমণের শিকার হচ্ছেন সিধু। অনেকেই মন্তব্য করেছেন, চিরশত্রু রাষ্ট্রের সেনাপ্রধানের সঙ্গে গলাগলি করে কাজটা মোটেই ভালো করেননি তিনি।

হরিয়ানার বিজেপি সরকারের মন্ত্রী অনিল ভিজ দাবি করেছেন পাকিস্তান সেনাপ্রধানকে জড়িয়ে ধরে সিধু নিজের দেশের সঙ্গে বেঈমানি করেছেন। কেউ কেউ বলছেন, সম্প্রতি মারা গেছেন ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী। তার মৃত্যুতে সাত দিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালন করছে ভারতবাসী। এ অবস্থায় তার সেই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া উচিত হয়নি।

সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হওয়ার পর সিধুর দাবি, জেনারেল বাজওয়ার সঙ্গে শুধু শান্তি নিয়েই তার কথা হয়েছে। ভারতের একটি টিভি চ্যানেলকে তিনি বলেন, ‘তিনি (বাজওয়া) এগিয়ে এসে আমাকে জড়িয়ে ধরেন। একজন লোক এগিয়ে এলে এবং ‘আমরা শান্তি চাই’ বলে জড়িয়ে ধরলে আমার করার ছিল?’

ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ হওয়া ৫৪ বছর বয়সী সিধু জানান, পাকিস্তানের কর্তারপুরে গুরদোয়ারা দরবারা সাহিব আছে। সেখানে আগামী ২০১৯ সালে গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকী পালিত হবে। এ উপলক্ষে ভারতের শিখ তীর্থযাত্রীদের জন্য একটি করিডোর খোলা হবে। নিজে থেকেই সেই কথা দিয়েছেন বাজওয়া।









Leave a reply