পাকিস্তানের ফার্স্ট লেডি তাহলে কি বুশরা?

|

সংবাদমাধ্যেমে অনেক সংবাদ প্রকাশের পর গত ফেব্রুয়ারিতে জানা যায় যে, বর্তমান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও তেহরিক-ই ইনসাফের প্রধান ইমরান খান তৃতীয় বিয়ে করেছেন। পাকপাত্তান এলাকার একটি পীর পরিবারের মেয়ে আধ্যাত্মিক নারী বুশরা মানেকাকে বিয়ে করেন সাবেক এই ক্রিকেটার।

কিন্তু দু মাসের মাথায় আবার জানা যায় যে ইমরান-বুশরার মাঝে বিচ্ছেদ ঘটেছে। তখন সংবাদ মাধ্যেমে প্রকাশ পায় যে, বুশরার আগের সংসারের ছেলের কারণেই এমন ঘটনা। এই বিয়ের আগে ইমরান খান শর্ত দিয়েছিলেন বুশরার পরিবারের কেউ যেন বেশিদিন না থাকে তার বাড়ি ‘বনি গালা’ তে। বুশরার ছেলে অনেক দিন ধরেই বনি গালাতে থাকায় চটে যান ইমরান খান। এরপর থেকে বুশরা আড়ালেই ছিলেন। তার কোন খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে পার্লামেন্ট নির্বাচনে জয় পাবার পর আজ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেয় ইমরান। এই শপথ অনুষ্ঠানের আগে বুশরার সাথে ইমরান খানের কয়েকটি ছবি প্রকাশ করা হয় পিটিআইয়ের টুইটারে। এতে করেই জনমনে প্রশ্ন উঠে তাহলেপাকিস্তানের ফার্স্ট লেডি কে বুশরা মানেকা।

এদিকে টুইটারে ইমরান খান জানান, কোন জাতিই সমৃদ্ধির চরম শিখরে পৌঁছতে পারেনা যদি পাশে কোন নারী না থেকে।

ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ বনে যাওয়া ইমরানের প্রথম স্ত্রী জেমাইমরা গোল্ডস্মিথ। ব্রিটিশ ধনকুবের পরিবারের জেমাইমার সঙ্গে ইমরানের বিয়ে হয় ১৯৯৫ সালে। ২০০৪ সালে তাঁদের বিচ্ছেদ হয়। ইমরান ২০১৫ সালে রিহাম খানকে বিয়ে করেন। এ বিয়ে টেকে মাত্র ১০ মাস।









Leave a reply