মদ খেয়ে কেজরিওয়ালের বিশ্বরেকর্ড!

|

একদিনের আতিথেয়তার জন্য অভিজাত হোটেলে ২ লাখ টাকা ব্যয় করেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল- এমনটি দাবি করা হয়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপির পক্ষ থেকে। যদিও দাবিটির সত্যতা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে।

তবে এই দাবি সত্য-মিথ্যা যাইহোক তাতে যায় আসে না বিজেপির। দলটি ইতোমধ্যে এ নিয়ে প্রচারণা শুরু করেছে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে। গেরুয়াশিবিরের পক্ষ থেকে দিল্লির পথে পথে সাটিয়ে দেয়া হয়েছে পোস্টার। তাতে কেজরিওয়ালের কল্পিত মদ খাওয়া ছবি যুক্ত করে ট্রল করা হচ্ছে এই বলে যে, ‘তিনি একদিনে ৮০ হাজার রুপির মদ খেয়ে বিশ্বরেকর্ড গড়েছেন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিজেপি সমর্থকরা ফটোশপে এডিটেড নানা ছবি ব্যবহার করে ট্রল করছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে। তারা বলছেন, ‘গরীবরা খেতে না পেয়ে মারা যাচ্ছে, অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী জনসাধারণের টাকার অপব্যবহার করছেন।’

সম্প্রতি কর্ণাটকে কুমারস্বামীর মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে অন্যান্য রাজ্যের নেতাদের আমন্ত্রণে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়। কেজরিওয়ালকে আমন্ত্রণের জন্য যে অর্থ ব্যয় হয় তাতে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর রিপোর্ট থেকে জানা যায়, কুমারস্বামীর সাত মিনিটের শপথগ্রহণে কর্ণাটক সরকারের মোট ৪২ লাখ টাকা ব্যয় হয়৷ মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নায়ডুর জন্য ৮.৭২ লাখ এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর কেজরিওয়ালের জন্য ১.৮৫ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে।









Leave a reply