হাসপাতাল থেকে ফের পুলিশ হেফাজতে শহীদুল আলম

|

আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন আলোকচিত্রী ও দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা শহীদুল আলমকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে আবারো পুলিশ হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করার মতো কিছু পাওয়া যায়নি। তাই নিয়মিত পরীক্ষা শেষে ফেরত পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএসএমএমইউ’র পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন।

অন্যদিকে, শহিদুল আলমকে হাসপাতালে চিকিৎসা দিতে হাইকোর্টের দেয়া নির্দেশ স্থগিত না করে আগামীকাল আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়েছেন চেম্বার আদালত। বুধবার, শহীদুল আলমকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) পাঠাতে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

এর আগে, হাইকোর্টের নির্দেশে বুধবার সকাল ৯টার দিকে ডিবি কার্যালয় থেকে শহীদুল আলমকে হাসপাতালে নেয়া হয়।

মঙ্গলবার তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে থাকা আলোকচিত্রী শহীদুল আলমকে চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বিএসএমএমইউয়ে পাঠাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে গত শনি ও রোববার ঝিগাতলা এলাকায় সংঘর্ষের বিষয়ে কথা বলতে বেশ কয়েকবার ফেসবুক লাইভে আসেন শহীদুল আলম।

রোববার রাতে ধানমন্ডির বাসা থেকে আলোকচিত্রী শহীদুলকে তুলে নেয় ডিবি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলন নিয়ে রোববার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম আল জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেন তিনি। এরপর, তাকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ। পরে, তার বিরুদ্ধে সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ওই মামলা হয়।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply