৩৬৯ রানে পিছিয়ে আছে টাইগাররা

|

পচেফস্ট্রুমে ২য় দিন শেষে ৩৬৯ রানে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। ইমরুল কায়েস, লিটন দাস ও মুশফিকেরর উইকেট হারিয়ে টাইগারদের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১২৭ রান। এর আগে ডিন এলগার ও হাশিম আমলার সেঞ্চুরিতে ৪৯৬ রানে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।

ডিন এলগার ১২৮ ও হাশিম আমলা ৬৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেন। টাইগার বোলারদের হতাশায় ডুবিয়ে ২১৫ রানের জুঁটি গড়েন তারা। ক্যারিয়ারের ২৭-তম সেঞ্চুরি তুলে নেন হাশিম আমলা। শফিউলের বলে মিরাজের হাতে যখন ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ততক্ষণে নামের পাশে যুক্ত করেছেন ১৩৭ রান।

দলীয় ৪৪৫ রানে গলার কাঁটা হয়ে উঠা ডিন এলগারকে প্যাভিলিয়নে ফেরান মোস্তাফিজুর রহমান। তখন এলগারের রান ১৯৯!
১ রানের আক্ষেপ নিয়ে সাজঘরে ফেরেন এই প্রোটিয়া। ৩ উইকেটে ৪৯৬ রান তুলে চা বিরতিতে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ৩১ রানে বাভুমা আর ২৬ রানে তুষ্ট ফ্যাফ ডু প্লেসি’র ব্যাটে আরও বড়ো সংগ্রহের সুযোগ থাকলেও, চা বিরতির সময় হঠাৎই ইনিংস ঘোষণা করে প্রোটিয়ারা।

বড় সংগ্রহ তাড়া করতে টাইগারদের প্রথম ধাক্কাটা দেন কাগিসো রাবাদা। দলীয় ১৬ রানে ওপেনার ইমরুল কায়েসকে তুলে নেন তিনি। থিতু হয়েও ২৫’র বেশি করতে পারেননি আরেক ওপেনার লিটন। এরপর মুমিনুলের সঙ্গে ৬৭ রানের জুঁটি গড়েন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। দারুণ আক্রমণাত্মক মুশফিক ৪৪ রানের বেশি করতে পারেননি।

মুশফিক আউট হয়ে ফিরে গেলে মাঠে নামার সুযোগ পান তামিম। দিন শেষে অপরাজিত আছেন ২২ রান করে। চা বিরতির আগে ৪৯ মিনিট মাঠের বাইরে ছিলেন তামিম। শুধু তামিম নয়, কেউ নিশ্চয় তখন ভাবতে পারেননি চা বিরতির পর হুট করে দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংস ঘোষণা করবে। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী তামিম যতক্ষণ মাঠের বাইরে ছিলেন, ঠিক ততক্ষণ তিনি ব্যাটিংয়ে নামতে পারবেন না। ফলে বাংলাদেশের ব্যাটিং অর্ডার শুরুতেই অদলবদল হয়ে গেল। শনিবার টাইগাররা কত লম্বা সময় ক্রিজে থাকতে পারবে, তারওপর নির্ভর করছে পচেফস্ট্রুম টেস্টের ভবিষ্যত।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply