আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার নিন্দা মানবাধিকার কমিশনের

|

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের প্রেক্ষিতে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের মাননীয় চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক বলেছেন, ‘শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক দাবির দ্রুত বাস্তবায়ন ও গণপরিবহনের নৈরাজ্য নিরসন করতে হবে। নারী, শিশুসহ সকল মানুষের নিরাপদে চলাচলের অধিকার রয়েছে। এটা মানবাধিকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘কিন্তু আমরা লক্ষ্য করছি, গাড়ির নিবন্ধন, ফিটনেস, রুট পারমিট ও লাইসেন্স প্রাপ্তিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হয়রানি, দায়িত্বে অবহেলা ও কতিপয় সদস্যের দুর্নীতির কারণে এবং এক শ্রেণীর অসাধু পরিবহন মালিক আইনের তোয়াক্কা না করে রাস্তায় চলাচলের অযোগ্য গাড়ি লাইসেন্সবিহীন অদক্ষ ড্রাইভারদের হাতে তুলে দেওয়া ও সড়কের অব্যবস্থাপনার কারণে সড়ক একটি মৃত্যুর ফাঁদে পরিণত হয়েছে যা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়।’

কমিশনের চেয়ারম্যান আরও বলেন, “সড়ক দুর্ঘটনায় জনগণের মানবাধিকার চরমভাবে লঙ্ঘিত হচ্ছে। এটা বন্ধ করতে হবে। পরিবহন খাতে দুর্নীতি, ক্ষমতার অপব্যবহার, রুটপারমিট ও ফিটনেসবিহীন গাড়ির আধিক্য, চালকের অযোগ্যতা, অদক্ষতা ও অসতর্কতাসহ এই খাতের সকল নৈরাজ্য বন্ধ করতে কমিশন সরকারের প্রতি আহবান জানাচ্ছে।’

কাজী রিয়াজুল হক নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত শিশুদের ওপর পরিবহন শ্রমিক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হামলার তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন এবং শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

আন্দোলনরত শিশুদের ন্যায্য দাবির সুযোগ নিয়ে কোন অসাধু গোষ্ঠীর চক্রান্তের কারণে শিশুদের জানমালের যেন কোন ক্ষতি না হয় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন কাজী রিয়াজুল হক।









Leave a reply