‘আমি কোনো ভুল করলে আপনারা ধরিয়ে দেবেন’

|

নগরবাসী তার ওপর যে দায়িত্ব অর্পন করেছেন সেটি সুচারুভাবে পালনে সচেষ্ট থাকবেন বলে জানিয়েছেন রাজশাহী সিটি নির্বাচনের বেসরকারিভাবে বিজয়ী আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খায়রুজ্জামান লিটন। বিজয়ের পর তিনি সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি কোনো ভুল করলে আপনারা ধরিয়ে দেবেন, আমি কিছু মনে করবো না, আমি বুঝবো আপনারা আপার শুভাকাঙ্ক্ষী। আমি ভুল করতেই পারি।

লিটন বলেন, তার প্রথম কাজ সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন নগর গড়ে তোলা। পাশাপাশি, রাজশাহী অঞ্চলে গ্যাস সংযোগ নিশ্চিত করা।

বিজয়ের পরপরই যমুনা টেলিভিশনকে লিটন জানান, আমার মিশ্র প্রতিক্রিয়া হচ্ছে। একই সাথে বিজয়ের আনন্দ, পাশাপাশি নগরবাসী আমাকে যেই দায়িত্ব দিয়েছে সেটি সুচারুরূপে পালন করার বিষয়টিও আমাকে তাড়িত করছে।

শোকের মাস আগস্টের কথা স্মরণে রেখে সমর্থকদের কোনো ধরনের বিজয় মিছিল করতেও নিষেধ করেছেন তিনি।

রাজশাহী সিটি নির্বাচনে ১৩৮ কেন্দ্রের মধ্যে পাওয়া সবকটির ফলাফল শেষে দেখা গেছে, নৌকা প্রতীকে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন পেয়েছেন ১ লাখ ৬৬ হাজার ৩৯৪ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মেয়রপ্রার্থী মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৭৮ হাজার ৪৯২ ভোট।

সোমবার অনুষ্ঠিত তিন সিটি নির্বাচনে রাজশাহীর ফলাফলই সবার আগে আসতে থাকে। এতে, প্রথম থেকেই এগিয়ে ছিলেন লিটন। সময় গড়ানোর সাথে সাথে ভোটের বিপুল ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে যান তিনি। এদিকে, লিটনের জয় নিশ্চিত হওয়ার পর থেকে তার সমর্থকদের উল্লাসে মেতে উঠতে দেখা গেছে। প্রতিযোগিতা দিয়ে চলেছে মিষ্টি বিতরণ।

এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম প্রধান সংগঠক ও জাতীয় নেতা এ এইচ এম কামারুজ্জামানের পুত্র। তার জন্ম ১৪ আগস্ট ১৯৫৯। ১৯৮৪ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে যোগদানের মাধ্যমে তার রাজনৈতিক জীবনের সূচনা। ২০০৮ সালে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মহাজোট সমর্থিত নাগরিক কমিটির মেয়রপ্রার্থী হন এবং জয়লাভ করেন। ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিনি উক্ত পদে অধিষ্টিত ছিলেন। বর্তমানে রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply