মসজিদই চলে যাবে মুসল্লির কাছে!

|

মোবাইল মসজিদ! নাম শুনে যে কেউ ভিরমি খেতেই পারেন, এ আবার কী? কিন্তু মুসল্লিদের কথা চিন্তা করে এমনই কিছু মসজিদ বানিয়েছে জাপান যেগুলো নিজেই চলে যাবে তাদের কাছে। চলন্ত এসব মসজিদে নামাজ আদায়ের পাশাপাশি খানিক জিরিয়েও নিতে পারবেন মুসল্লিরা।

২০২০ সালের গ্রীষ্ণকালীন অলিম্পিক ঘিরে দেশটিতে প্রচুর পর্যটক আসবেন। যার একটি বড় অংশ থাকবে মুসলমান। তাদের কথা মাথায় রেখেই বিশালাকৃতির ট্রাক সংস্কার করে মোবাইল মসজিদ বানানো হয়েছে। মুসলিম পর্যটকরা যেন জাপানে গিয়ে অস্বস্তিতে না পড়েন।

প্রকল্পের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াশুহারু ইনোয়ী বলেন, ২০২০ সালে যে সংখ্যক মুসলিম পর্যটক আসার কথা, সে অনুসারে মসজিদ অপ্রতুল। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কথা মাথায় রেখেই আমরা এমন আয়োজন করেছি। আমাদের চলন্ত মসজিদ বিভিন্ন অলিম্পিক ভেন্যুতে চলে যাবে মুসল্লিদের কাছে।

সাম্প্রতিক এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, একটি উন্মুক্ত ও অতিথিপরায়ণ দেশ হিসেবে মুসলিম দেশগুলোর সঙ্গেও আমরা সৌহার্দপূর্ণ আচরণ করতে চাই। টয়োটা শহরে স্টেডিয়ামের বাইরে চলতি সপ্তাহে প্রথমবারের মতো এ চলন্ত মসজিদের উদ্বোধন করা হয়।

জানা গেছে, ২৫ টন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন ট্রাক সংস্কার করে এসব মোবাইল মসজিদ বানানো হচ্ছে। একেকটি চলন্ত মসজিদে ৫০ জনের মতো লোক নামাজ আদায় করতে পারবেন। আর মসজিদের বাইরে সংযুক্ত কলে থাকবে ওযু করার ব্যবস্থা। অতএব, জাপানে গিয়ে নামাজ কোথায় পড়বেন সেটি নিয়ে আর দুশ্চিন্তা করতে হবে না মুসলিম পর্যটকদের।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply