সুনামগঞ্জে হাওরে বেড়েছে মাছ উৎপাদন, খুশি মৎস্যজীবীরা

|

সুনামগঞ্জের হাওরে চাহিদার তুলনায় মাছের উৎপাদন বেড়েছে প্রায় দ্বিগুন। ফলে এ বর্ষায় মিলছে দেশি নানা প্রজাতির মাছ। গতবছর মড়কের পর এবার মাছের উৎপাদন বাড়ায় খুশি মৎস্যজীবীরা।

গেলো বছর আগাম বন্যায় ধান পচে সৃষ্ট হয়েছিলো অ্যামোনিয়া গ্যাস। যার প্রভাবে হাওরে মাছের মড়ক দেখা দেয়। এতে কমে যায় মাছের উৎপাদন। ফলে তিন-চার মাস চরম কষ্টে দিন কাটে সুনামগঞ্জের জেলেদের।

ক্ষতি পুষিয়ে নিতে হাওরে ঘের দিয়ে রেনু উৎপাদন করা হয়। একই সঙ্গে সরকারের পক্ষ থেকে ছাড়া হয় অতিরিক্ত পোনা। যার সুফল মিলছে এখন।

জেলায় বাৎসরিক মাছের চাহিদা ৫০ হাজার ৪৪৫ মেট্রিক টন। এ চাহিদা মিটিয়ে হাওরের মাছ রফতানি হচ্ছে। মৎস্য অফিসের তথ্য অনুযায়ী ২০১৬/১৭ অর্থবছরে সুনামগঞ্জে মাছের উৎপাদন ছিল প্রায় ৮১ হাজার মেট্রিক টন। গেলো অর্থবছরে যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৪ হাজার ২৭৭ মেট্রিক টনে।

সুনামগঞ্জে মৎস্য অফিসের আওতাধীন হাওর ৮২টি। তালিকাভূক্ত জেলে প্রায় ২৫ হাজার।









Leave a reply