ওজিলের প্রতি সম্মান জানিয়ে তুরস্কে ‘ওজিল স্ট্রিট’

|

বর্ণবৈষম্য ও অসম্মানের প্রতিবাদ জানিয়ে জার্মান জাতীয় দল থেকে অবসর নিয়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে তারকা ফরওয়ার্ড মেসুত ওজিল। জার্মানিসহ বিশ্বজুড়ে ভক্তরা পক্ষে দাঁড়িয়েছেন তার। তবে, সবচেয়ে বেশি সমর্থন পাচ্ছেন তুরস্কবাসীর কাছ থেকে। অবসরের একদিন পরই তার নামে রাস্তার নামকরণ করে তাকে সম্মান জানিয়েছে তুরস্ক।

দেশটির উত্তরে ব্লাক-সি প্রদেশের ডেভারেক জেলায় ওই রাস্তার অবস্থান। সেই শহরেই ওজিলের পূর্বপুরুষরা বসবাস করতেন। সেখান থেকে বিতাড়িত হয়ে জার্মানিতে আশ্রয় নেয় তার পরিবার। পরে প্রবাস জীবনযাপন করতে থাকে।

তুরস্ক গণমাধ্যমের খবর, জার্মানির হয়ে ওজিলের অনন্য অর্জনের স্মরণে রাস্তাটির নামকরণ করা হয়েছে। রাস্তার শুরুতে তার নামে নামকরণের ফলক রাখা হয়েছে। রাখা হয়েছে বিলবোর্ডও। সেখানে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগানের সঙ্গে এ মিডফিল্ডারের ছবি শোভা পাচ্ছে। ইতিমধ্যে রাস্তাটির কাজ আরম্ভ হয়েছে।

বিশ্বকাপের আগে, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে বিতর্কে পড়েন ওজিল। সে জার্মান ফুটবল ফেডারেশন (ডিএফবি) থেকে তাকে সতর্ক করা হয়। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকে জার্মানি ছিটকে যাওয়ার কারণ হিসাবে দায়ী করা হয়েছিল আর্সেনাল তারকার নিষ্প্রভ পারফরম্যান্সকে। এমনকি, দেশটির ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তারাও তার প্রতি বিষেদগার করেছেন বলে জানান জার্মানির হয়ে ৯২ ম্যাচ খেলা এই ফরোয়ার্ড।

অভিমান নিয়ে বলেছেন, যখন আমি ভালো খেলে জিতি তখন আমি একজন জার্মান। আর যখন হেরে যাই তখন আমি অভিবাসী। যখন ফেডারেশনের অন্যান্য উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারাও আমার তুর্কি পরিচয়কে অপমান করলেন, এবং স্বার্থপরের মতো আমার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রপাগান্ডায় নামলেন (তখন বুঝতে পারলাম), যথেষ্ট হয়েছে, তাদের সাথে আর নয়।

যমুনা অনলাইন: টিএফ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply