যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক সহিংসতা; অস্ত্র আইন কড়াকড়ির দাবি

|

ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রে পরপর বড় দু’টি ম্যাস শ্যুটিংয়ের ঘটনার পর আবারও অস্ত্র আইন কড়াকড়ির দাবি জোরদার হয়েছে। নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসনও। তবে বরাবরের মতোই এতে বাধ সাধছে ডেমোক্র্যাট-রিপাবলিকান দ্বন্দ্ব। আর, এ নিয়ে ফুঁসে উঠেছে ক্যালিফোর্নিয়ার স্থানীয় প্রশাসন। খবর সিবিএস নিউজের।

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গেভিন নিউসম বলেন, এই ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র সহিংসতা আমরা কেবল যুক্তরাষ্ট্রেই দেখতে পাই। এই সহিংসতাকে আমরাই অনুমোদন দিয়েছি। রাজনীতি, দলমত নির্বিশেষে এটা আমাদের নিরাপত্তাকে হুমকির মুখে ফেলছে। মন্টেরি পার্কের সহিংসতার পরও কংগ্রেস স্পিকার কেভিন ম্যাকার্থির কোনো প্রতিক্রিয়া পেলাম না। অস্ত্র আইন পাসে রিপাবলিকানরা প্রতিটি ধাপে বাধার সৃষ্টি করেছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গেভিন নিউসম। ছবি: সংগৃহীত

চলতি বছর ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র জুড়ে ৩৯ টি ম্যাস শ্যুটিংয়ের ঘটনা ঘটেছে। অস্ত্র আইন বাস্তবায়নে আইনপ্রণেতাদের জরুরি পদক্ষেপ গ্রহণের তাগিদ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, ক্যালিফোর্নিয়ায় এশীয়-আমেরিকান কমিউনিটিতে যা ঘটেছে তাতে গোটা দেশ শোকাহত। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা হয়েছে। অস্ত্র আইন বাস্তবায়নে সবাইকে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে হবে।

এদিকে, মন্টেরি পার্কের বন্দুক সহিংসতায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আয়োজিত হয়েছে স্মরণসভা। সেখানে অংশ নিয়ে বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানান বাসিন্দারা। অস্ত্র আইন জোরদারের দাবি জানান তারা। এক ভদ্রমহিলা বলেন, পুরো কমিউনিটি এখনও ঘোরের মধ্যে আছে। দুঃসময়ে একে অপরের প্রতি সহানুভূতি ও ভালোবাসা জানাতে এখানে এসেছি।

আরও পড়ুন: ট্রাম্প-বাইডেনের পর এবার ফাঁসলেন মাইক পেন্স

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply