আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পেয়ে স্বস্তিতে রংপুরের শতাধিক মাহালী পরিবার

|

প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় এসে হাসি ফুটেছে মাহালী সম্প্রদায়ের মানুষের মুখে।

ফয়সাল মাহমুদ:

একটা সময় জীবন ছিল অনিশ্চয়তায় ভরা। মাথা গোঁজার আশ্রয় বলতে ছিল না কিছুই। তীব্র শীত আর ঝড়-বৃষ্টিতে কেটেছে দুর্বিষহ জীবন। যুগ যুগ ধরে এটাই রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার চৈত্রাকলের মাহালী সম্প্রদায়ের মানুষগুলোর জীবনের গল্প। এবার প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় এসে হাসি ফুটেছে তাদের মুখে।

নতুন ঘর পাওয়া সীমন-সুজলা দম্পতি জানান, একসময় বাঁশের চাটাই, খড় আর ত্রিপলের চালার নিচে বসবাস করতেন তারা। জমিও ছিল না নিজের। বৃষ্টি এলে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিতে হতো। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া পাকা ঘর পেয়ে এখন নিজেদের বাড়িতে সুখেই আছেন তারা।

পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিরোদা রানী রায় বলেন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী মানুষের জীবনমান উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন প্রশিক্ষণ এবং তাদের সম্প্রদায় ভিত্তিক যে কর্মকাণ্ড রয়েছে, তা চালিয়ে নেয়ার জন্য আমরা সর্বদা সচেষ্ট আছি। এছাড়া, তারা যেন আমাদের মূল স্রোতধারায় ফিরে আসে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নত বাংলাদেশ গঠনে উপজেলা প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলা এ পর্যন্ত ২ হাজারেরও বেশি ভূমিহীন পরিবার পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর ও একখণ্ড জমি।

এএআর/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply