বৈশ্বিক কারণে হুমকির মুখে ব্যবসা-বাণিজ্য; ডিসিসিআই’র ব্রিফিং

|

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সংবাদ সম্মেলন।

বৈশ্বিক কারণে হুমকির মুখে পড়েছে ব্যবসা-বাণিজ্য। কর্মী ছাঁটাই না করে ব্যবসা চলমান রাখাই হবে, চলতি বছরের জন্যে বড় চ্যালেঞ্জ।

শনিবার (২১ জানুয়ারি) সকালে সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি করেছেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ডিসিসিআই) সভাপতি ব্যারিষ্টার সামীর সাত্তার। তিনি বলেন, সার্বিক অর্থনীতিতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের অবদান ২৫ ভাগ। কিন্তু তারা ব্যাংক ঋণ পাচ্ছেন না। বিপুল সংখ্যক উদ্যােক্তার জন্য ব্যাংকে আলাদা বুথ নির্দিষ্ট করা দরকার।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, ডিজিটাল বিষয়ে দক্ষতা নেই দেশের ৮৪ ভাগ যুবকের। রফতানি বাজার টিকে আছে তৈরি পোশাক শিল্পে ভর করে। পণ্যের বিকেন্দ্রিকরণ জরুরি। চামড়া, ওষুধ শিল্পকে এগিয়ে নেয়া প্রয়োজন।

এ সময়, খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার আহ্বান জানান ঢাকা চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি ব্যারিষ্টার সামীর সাত্তার। তিনি বলেন, বারবার ছাড় দেয়া হলে অসৎ ব্যবসায়ীরা সুযোগ নেবে। সামীর সাত্তার আরও বলেন, ঢাকা এবং চট্টগ্রাম থেকে রাজস্ব আসে ৯৮ ভাগ। অন্য অঞ্চল থেকে রাজস্ব আদায় বাড়াতে হবে। ইকোনমিক জোনে সংযোগ সড়কসহ আনুষঙ্গিক সুবিধা প্রদানের আহ্বান জানান তিনি। বলেন, প্রতি মাসে জ্বালানির দাম ঘোষণা করা হলে ব্যবসায়ীরা সুবিধা পাবেন।

ডিসিসিআইয়ের সভাপতি বলেন, মাইক্রোসফটের মতো বড় কোম্পানি গত বৃহস্পতিবার ১০ হাজারের মতো কর্মী ছাঁটাই করেছে। বেসরকারি খাতে ব্যবসায়ীরা যদি তাদের কর্মী ছাঁটাই না করে ব্যবসা পরিচালনা করে যেতে পারে, তবে সেটাই হবে তাদের সবচেয়ে বড় পাওয়া, অন্তত ২০২৩ সালে।

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply