স্ত্রীর স্বীকৃতির দাবিতে প্রেমিকার আমরণ অনশন

|


স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর

মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার কদমবাড়ী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বাবুল মজুমদারের এর বড় ছেলে মিহির এর স্ত্রী পরিচয়ে অঞ্জনা নামে এক নারী ৩দিন ধরে আমরণ অনশন করে আসছে। তার দাবি তাকে স্ত্রীর স্বীকৃতি দিতে হবে। আর এটা মেনে না নিলে আত্মহত্যা করবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। এদিকে মেম্বারসহ তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছে।

অনশনকারী নারী অঞ্জনা মন্ডল জানান, বাবুল মজুমদারের ছেলে মিহির মজুমদারের সাথে তাদের দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। গত ২০১৭ সালের ১৫ নভেম্বর রাজৈর কালী মন্দিরের পুরোহিতের মাধ্যমে বিয়ে করে। এরপর ২০১৭ সালের ৪ ডিসেম্বর মাদারীপুর জজ কোর্টে কোর্ট ম্যারেজ করে। কিন্তু এখন বাবুল মজুমদার বিষয়টি মেনে নিতে চাচ্ছে না। ধামাচাপা ও তালাক দেয়ার জন্য তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেছে। অবশেষে নিরুপায় হয়ে অঞ্জনা মন্ডল স্ত্রীর অধিকার আদায়ের জন্য অনির্দিষ্টকালের জন্য মেম্বার বাবুল মজুমদারের বাড়িতে আমরণ অনশন করছেন।

আরও জানা যায় স্থানীয় সালিশের মাধ্যমে কয়েক মাস আগেও কয়েক দফা বৈঠক বসলেও নানা অজুহাতে কালক্ষেপণ করছে ছেলের পরিবার। তবে স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশ বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করছে।

এ নিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় এলাকার ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে এক সালিশ বৈঠক বসে। কিন্তু এসময় প্রেমিক মিহিরের পরিবারের লোকজন হাজির না হওয়ায় অঞ্জনা মন্ডলকে ওই বাড়িতে থাকার কথা বলেন তারা।

অঞ্জনা জানান, তাকে স্ত্রীর মর্যাদা না দেয়া পর্যন্ত এখান থেকে তিনি যাবেন না। স্ত্রীর মর্যাদা না দেয়া হলে তিনি আত্মহত্যা করবেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাস বলেন, আমরা সালিশ বৈঠকে বসেছিলাম। কিন্তু ছেলের পক্ষ হাজির না হওয়ায় সমাধান করতে পারিনি। তবে মেয়েটি স্ত্রীর অধিকার পাক, এটা আমরা কামনা করি।

ওসি জিয়াউল মোর্শেদ জানান, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।









Leave a reply