রোগীর কিশোরী স্বজনকে ধর্ষণের অভিযোগ, ইন্টার্ন চিকিৎসক আটক

|

সিলেটের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নানিকে চিকিৎসা করাতে এসে নাতনি ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ইন্টার্ন চিকিৎসক মাকামে মাহমুদকে আটক করেছে পুলিশ।

রোববার রাতে হাসপাতালের তৃতীয় তলায় ওই চিকিৎসকের কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরীকে হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, অসুস্থ্ নানীর সাথে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছিল নবম শ্রেণির ওই ছাত্রী। গতরাতে রোগীর ফাইল দেখার কথা বলে ইন্টার্ন ডাক্তার মাকামে মাহমুদ মেয়েটিকে নিজের কক্ষে ডেকে নিয়ে যায় এবং ধর্ষণ করে।

সকালে বাবা-মা হাসপাতালে আসার পর স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনা তাদের জানায়। পরে পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ করা হয়। অভিযুক্ত চিকিৎসকের বাড়ি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায়। সে ওসমানী মেডিক্যালের নাক, কান ও গলা বিভাগের ইন্টার্ন চিকিৎসক।









Leave a reply