রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই: প্রধানমন্ত্রী

|

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই, পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র যেন জনগণের জন্য কোনও ঝুঁকি সৃষ্টি না করতে পারে, সে বিষয়ে সরকার সর্বোচ্চ সতর্ক বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের ২য় ইউনিটের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করে একথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে কিছু মহল উদ্বেগ প্রকাশ করে। কারণ এখানে নিরাপত্তার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরাও এ বিষয়ে অত্যন্ত সচেতন। এটি নির্মাণে আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার গাইডলাইন ও আন্তর্জাতিক মান অক্ষরে অক্ষরে পালন করা হচ্ছে।

তিনি জানান, পারমাণবিক নিরাপত্তা ও বিকিরণ নিয়ন্ত্রণের সর্বাধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে রিঅ্যাক্টরে। এখানে রুশ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। যেকোনো দুর্যোগ মোকাবিলায় রাশিয়া আমাদের পাশে থাকবে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তিনি পাশের থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। পরমাণু শক্তি শান্তির কাজে ব্যবহার করবো আমরা। পরমাণু শক্তির ৩৩তম রাষ্ট্র হিসেবে আমাদের অগ্রযাত্রা শুরু হলো।

বিকেলে, পাবনা পুলিশ লাইনস মাঠে জেলা আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, আগামী নির্বাচনে বিজয়ী হলে প্রতিটি গ্রামে শহরের মতো নাগরিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা হবে।

সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী জানান, দেশের সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে সমানভাবে উন্নয়নের স্রোতে যুক্ত করতে কাজ করে যাচ্ছে তার সরকার। আওয়ামী লীগ জনগণের উন্নয়নে কাজ করে আর বিএনপি ধংসের রাজনীতি করে। নৌকায় ভোট দেয়ায় দেশের উন্নয়ন হচ্ছে, মানুষ সুখে শান্তিতে বসবাস করছেন।

সন্ত্রাস ও মাদকের বিষয়ে সরকারের জিরো ট্রলারেন্স নীতির কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মাদকাসক্ত সন্তান একটি পরিবারকে ধ্বংস করে দেয়। নিয়মিত ছেলে মেয়েদের খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি তাদের সাথে বন্ধুত্বসুলভ সম্পর্ক গড়ে তোলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পাবনাবাসীর জন্য উপহার উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধনের ফলে ব্যাপক কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এখানে।

যমুনা অনলাইন: টিএফ









Leave a reply