পাকিস্তানে বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৩৩

|

পাকিস্তানের মাস্টাংয়ে বোমা হামলার ঘটনার সময় গড়ানোর সাথে সাথে বেড়ে চলেছে প্রাণহানির সংখ্যা। শুক্রবার সন্ধ্যার এ হামলায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩৩ জনে।

নিজস্ব সংবাদমাধ্যম ‘আমাক’ নিউজে হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস। যদিও হামলার কারণ জানায়নি গোষ্ঠীটি।

আত্মঘাতী এ হামলায় আহত হয়েছে ২শ’র বেশি মানুষ। হামলার পরপরই কোয়েট্টার হাসপাতালগুলোতে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

সাধারণ নির্বাচনের প্রচারণার সময় এ হামলায় প্রাণ যায় বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টির প্রার্থী সিরাজ রাইসানির।

একইদিন সকালে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের বান্নুতে নির্বাচনী জনসমাবেশ থেকে ফেরার পথে জামিয়াত ওলামা-এ ইসলাম-ফজল দলের নেতা আকরাম খান দুররানির গাড়িবহল লক্ষ্য করে বোমা হামলা চলে। যাতে নিহত হয় চারজন, আহত হয় আরও ১০জন।

হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন পাকিস্তানের চিফ অব আর্মি স্টাফ জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া, তেহরিক-ই-ইনসাফ নেতা ইমরান খানসহ অনেকে।

এর আগে বেলুচিস্তানে শুক্রবার বিএপি নেতা সিরাজকে লক্ষ্য করেই এ হামলা চালানো হয়েছে। আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে তিনি বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি থেকে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। তার বড় ভাই ছিলেন বেলুচিস্তানের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী নবাব আসলাম রাইসানি। হামলার পরে আহতদের নিকটস্থ মাস্তুং ডিস্ট্রিক্ট হেড কোয়াটার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সিরাজ রাইসানিকে কোয়েটাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছিল। সেখানেই তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি এ বছরের মার্চ মাসে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। জুনে সিরাজ তার দল বেলুচিস্তান মুত্তাহিদা মাহাজকে বিএপির সাথে যুক্ত করেন। তার ছেলে আকমল রাইসানি ও ২০১১ সালে এক হামলায় নিহত হয়েছিল।

যমুনা অনলাইন: আরএম

 

 









Leave a reply