যুক্তরাষ্ট্রকে সবচেয়ে বড় স্বৈরাচারী দেশের অ্যাখা দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট

|

যুক্তরাষ্ট্রকে সবচেয়ে বড় স্বৈরাচারী দেশ হিসেবে আখ্যা দিলেন ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রইসি। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘শিক্ষার্থী দিবস’ এর আয়োজনে দেয়া ভাষণে এ কথা বলেন তিনি।

ইরান প্রেসিডেন্ট বলেন, বিশ্বজুড়ে একনায়কতন্ত্রের চর্চা করে মার্কিনীরা। রইসির বক্তব্যে তুমুল করতালি দেয় উপস্থিত শিক্ষার্থীরা। যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা জানিয়ে স্লোগান দেন তারা। চলমান হিজাববিরোধী আন্দোলনে জড়িতদের দাঙ্গাবাজও বলেন রইসি। স্পষ্ট জানিয়ে দেন, বিক্ষোভ-সহিংসতার জেরে নত হবে না প্রশাসন। এদিনও রাজধানীসহ অনেক স্থানে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর হিজাব ইস্যুতে আটক তরুণী মাহশা আমিনির মৃত্যু হয় পুলিশি হেফাজতে। এরপরই পোশাকের স্বাধীনতার দাবিতে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে দেশটিতে। যাতে সংহতি জানায় বিভিন্ন দেশ। শুরু থেকেই আন্দোলনের পেছনে পশ্চিমাদের দায়ী করছে তেহরান।

ইব্রাহিম রইসি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্বৈরাচারী দেশ। ইরানের বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের সত্যিকারের আওয়াজ ঔদ্ধত্যের বিরুদ্ধে, মার্কিনিদের বিরুদ্ধে। পশ্চিমারা ভাবে, ইরানও অন্যান্য দেশের মতো দাঙ্গাবাজদের বিরুদ্ধে হাল ছেড়ে দেবে। এখানে বহু শিক্ষিত নারী-পুরুষ আছেন। বিক্ষোভকারীদের যা খুশি, তাই করতে দেবেন না তারা।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply