খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি যুবরাজের বিরুদ্ধে মামলা খারিজ করলো যুক্তরাষ্ট্র

|

জামাল খাশোগি ও মোহাম্মদ বিন সালমান। ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বজুড়ে আলোচিত সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডে সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের বিরুদ্ধে করা মামলা খারিজ করে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালত। মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) মামলাটি খারিজ করেন বিচারক জন বেটস। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আদালতকে জানায়, বিদেশি সরকারের প্রধান হিসেবে সৌদি যুবরাজ মার্কিন আদালতের বিচারের আওতা থেকে ছাড় পাবেন। এর আগে গত সেপ্টেম্বরে সৌদি আরবের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন যুবরাজ সালমান।

সালমানকে নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই অবস্থানের ভিত্তিতেই হত্যা মামলাটি খারিজ করেছেন বিচারক জন বেটস। তিনি বলেন, সৌদি আরবসহ বিদেশি বিভিন্ন বিষয় দেখভালের দায়িত্ব যুক্তরাষ্ট্র সরকারের। এখন যদি আদালত সৌদি যুবরাজের দায়মুক্তির বিষয়ে বিপরীত কোনো সিদ্ধান্ত দেয়, তা সরকারের ওই দায়িত্ব পালনে হস্তক্ষেপ হবে। তাই এই মামলা নিয়ে ভিন্ন কোনো সিদ্ধান্ত দেয়ার উপায় তার হাতে নেই।

খাশোগি হত্যাকাণ্ড নিয়ে শুরু থেকে শক্ত অবস্থানে ছিল মার্কিন সরকার। একটি গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়, যুবরাজ সালমান খাশোগিকে হত্যাকাণ্ডের অনুমোদন দিয়েছিলেন- এমন প্রমাণ পাওয়া গেছে। যদিও ওই দাবি নাকচ করেছিল সৌদি সরকার। এ ঘটনায় ওয়াশিংটন-রিয়াদ সম্পর্কেও চিড় ধরে। তবে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য দিন দিন ইরানের হুমকি হয়ে ওঠা এবং জ্বালানি তেলের বাজারে সৌদি আরবের আধিপত্যের কারণে শেষ পর্যন্ত ওই সম্পর্ক জোড়া লাগাতে তৎপর হয়ে ওঠেন বাইডেন। এর জেরে গত জুলাইয়ে সৌদি আরব সফর করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ২ অক্টোবর সালমানসহ সৌদি শাসকগোষ্ঠীর কঠোর সমালোচক খাশোগিকে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি আরবের কনস্যুলেটের ভেতরে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের আদালতে মামলা করেন তার বাগদত্তা হেতিজে চেঙ্গিস।

এএআর/ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply