রাজশাহীতে গলায় ফাঁস দিয়ে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা

|

পরিবারের আহাজারি।

রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহীতে ১৩ বছরের এক শিশুর রহস্যজনক মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিজ বাড়িতে ওই শিশুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। শিশুর নাম মুুহিত হাসান তুর্জ (১৩)। সে নগরীর কলিজিয়েট সরকারি স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র। তার বাবা রেজাউল করিম রাজশাহী পবা উপজেলার উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা এবং মা বাগমামা উপজেলার একটি স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) রাজশাহীর চন্দ্রিমা থানাধীন ছোটবনগ্রাম ক্লাবের মোড় এলাকার বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরিবারের বরাত দিয়ে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন জানান, তুর্জর বাবা-মা দুজনেই চাকরি করেন। ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের ছোটবনগ্রাম এলাকার একটি ভবনে দুইটি ফ্ল্যাটে তাদের পরিবার এবং তার দাদা-দাদি বসবাস করতেন।

রোববার দুপুরে স্কুল থেকে ফিরে তুর্জ গলায় গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে বলে জানা গেছে। এসময় বাড়িতে তার ছোট সহোদর ছিল। তবে পরিবারের কেউই তুর্জর এই আত্মহত্যার কারণ বলতে পারছে না বলে জানান তিনি।

এরই মধ্যে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেছে। তার শরীরের কোথাও কোনো অসামঞ্জস্য চোখে পড়েনি বলেও জানান তৌহিদুল হক সুমন।

এসজেড/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply