ঢাবিতে প্রাইভেটকারে পিষ্ট রুবিনার দাফন সম্পন্ন; শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল

|

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাসে প্রাইভেটকারের চাকায় পিষ্ট হয়ে নিহত রুবিনা আক্তারের দাফন আজিমপুর কবরস্থানে মায়ের কবরের পাশে সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মোটরসাইকেল আরোহী রুবিনা আক্তারের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় মশাল মিছিল করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শনিবার দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। এসময় স্বজনদের আর্তনাদে ভারি হয়ে ওঠে পরিবেশ। এমন নৃশংসতায় বিবেক নড়ে ওঠে অপরিচিতদেরও।

শুক্রবার রাতেই শাহবাগ থানায় নিহতের ভাই জাকির হোসেন বেপোরোয়া গাড়ি চালকের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। গাড়িটির চালক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরিচ্যুত শিক্ষক জাফর শাহকে আসামি করা হয় মামলায়।

ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার মো শহীদুল্লাহ বলেন, গণধোলাইয়ে আহত জাফর শাহকে জিজ্ঞাসাবাদ করা গেলে বিষয়টি পরিষ্কার হবে।

শুক্রবার শাহবাগে জাফর শাহ’র গাড়ি মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিলে পড়ে যান রুবিনা। চাকায় পিষে শাহবাগ থেকে নীলক্ষেত পর্যন্ত দীর্ঘপথ রুবিনাকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে যায় গাড়িটি। এসময় কিছু যু্বক এই দৃশ্য দেখে মোটরসাইকেলে করে গাড়িটিকে ধাওয়া দিয়ে আটক করে। ঘটনার পর গণধোলায়ের শিকার হয়ে ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন জাফর শাহ।

এদিকে এই ঘটনায় রোববার সন্ধ্যায় নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। মিছিলটি টিএসসিতে থেকে শুরু হয়ে ভিসি চত্বর, নীলক্ষেত ঘুরে আবার টিএসসিতে এসে শেষ হয়। এসময় শিক্ষার্থীরা রুবিনা আক্তারের মৃত্যুর ঘটনায়ে প্রক্টরিয়াল কমিটির সমালোচনা করেন। বলেন, শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নয়, ক্যাম্পাস দিয়ে চলাচল করা প্রতিটি মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল কমিটির দায়িত্ব। এসময় প্রক্টরের পদত্যাগের দাবি করেন তারা।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply