ব্রাজিল-ক্যামেরুন: টানা আক্রমণের পরও গোলশূন্য প্রথমার্ধ

|

ব্রাজিল- ক্যামেরুন ম্যাচের প্রথমার্ধে শেষ হয়েছে ০-০ স্কোরলাইনে। এ সময় বেশকয়েকবার গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল দুইদলই। কিন্তু, জালের ঠিকানা পায়নি বল।

নয় পরিবর্তন নিয়ে খেলতে নামা ব্রাজিল ম্যাচের শুরু থেকেই ছিলো আক্রমণাত্মক ভঙ্গীমায়। শুরু থেকেই ক্যামেরুনের বুকে কাঁপন ধরানো সব আক্রমণ করতে থাকে তিতে শীষ্যরা।

১৪ মিনিটে ফ্রেডের ক্রস থেকে আসা মার্টিনেল্লির হেডে প্রথম গোলটি পেতে পারতো ব্রাজিল। কিন্তু ক্যামেরুনের গোলরক্ষকের নৈপূণ্যে সে দফায় শুধু একটি কর্নার নিয়ে সন্তষ্ট থাকতে হয় পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

ম্যাচের ২০ মিনিটে ব্রাজিলের গোলমুখে দারুণ এক আক্রমণ করে বসে ক্যামেরুন। তবে গোলরক্ষক অ্যাডারসনের দক্ষতায় সে দফা পরাস্ত হয় আফ্রিকার অদম্য সিংহরা। ম্যাচের ২২ থেকে ২৪ মিনিটের মধ্যে বল ছিলো ক্যামেরুনের গোলপোস্টের আশেপাশেই। এ সময় সেখানে ৩ দফা আক্রমণ চালান অ্যান্টনি-মার্টিনেল্লিরা।

ম্যাচের ২৮ মিনিটে বল নিয়ে ক্যামেরুনের গোলবারের দিকে এগোচ্ছিলেন রদ্রিগো; এ সময় গোল থেকে মাত্র ২৫ গজ দূরে তাকে বাজেভাবে ট্যাকল করায় হলুদ কার্ড দেখেন ক্যামেরুনিয়ান মিডফিল্ডার পিয়েরে কুন্ডে। ৩২ মিনিটের সময় আবারও একই জায়গায় রদ্রিগোকে ফাউল করেন ক্যামেরুনিয়ান লেফট ব্যাক কলিন্স ফাই। আগের ম্যাচেও হলুদ কার্ড দেখায় তার দল পরের রাউন্ডে গেলেও তিনি আর সে ম্যাচে খেলতে পারবেন না।

৪৭ মিনিটে দারুণ এক আক্রমণ থেকে গোল প্রায় পেয়েই গিয়েছইলো ক্যামেরুন। এটি এবারের বিশ্বকাপে ব্রাজিলের গোলপোস্টে প্রতিপক্ষের প্রথম অন টার্গেট শট।

প্রথমার্ধের বাকি সময়ে স্কোরলাইনে আর কোনো পরিবর্তন না আসায় 0-0 ব্যবধান নিয়েই বিরতিতে যায় দুইদল।
/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply