লেভার বাড়ানো হাত দেখলেনই না মেসি!

|

ছবি: সংগৃহীত

আর্জেন্টিনা বনাম পোল্যান্ডের ম্যাচের শেষদিকে রবার্ট লেভানদোভস্কি ফাউল করেন লিওনেল মেসিকে। সাথে সাথে ক্ষমা চাইলেও প্রতিক্রিয়ায় শীতল অভিব্যক্তি দেখান আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। লেভার বাড়িয়ে দেয়া হাত স্পর্শও করেননি মেসি। এমনকি তাকিয়ে দেখার প্রয়োজনও বোধ করেননি এই ক্ষুদে জাদুকর। তবে ম্যাচ শেষে আবার দু’জনকে কথা বলতেও দেখা যায়।

রবার্ট লেভানদোভস্কির সাথে যে লিওনেল মেসির দারুণ বন্ধুত্ব নেই, সেটা জানা কথাই। ২০২১ ব্যালন ডি’অর থেকেই এই দুই ফুটবলারের মধ্যে দ্বৈরথ নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। এর মাঝে, ২০২১ সালের বর্ষসেরা ফুটবলার হয়ে মেসি বলেছিলেন, লেভানদোভস্কিকে ২০২০ সালের ব্যালন ডি’অর প্রদান করা উচিত। তবে সেই কথা তখন ভালোভাবে নেননি পোলিশ স্ট্রাইকার লেভানদোভস্কি। তার জবাব নিয়ে অবশ্য আর মুখ খোলেননি মেসিও। তবে তার মনে হতেই পারে, তার দেয়া সম্মানসূচক কথার জবাব হয়তো সে অনুযায়ী দেননি লেভা।

এরপর, মাঠেই দেখা হলো বার্সেলোনার সাবেক ও বর্তমান দুই তারকা মেসি ও লেভানদোভস্কির। সেই দ্বৈরথে মেসির আর্জেন্টিনার কাছে পাত্তাই পায়নি লেভার পোল্যান্ড। ম্যাচে ফাউলের সেই সময়ে মনে হতেই পারে, এই দু’জনের মধ্যে হয়তো সুপ্ত রেষারেষি থাকলেও থাকতে পারে।

তবে, ম্যাচ শেষে দেখা গেলো ভিন্ন চিত্র। ফুটবল মাঠের এই দুই তারকা করমর্দন করলেন, করলেন আলিঙ্গনও। স্টেডিয়াম ৯৭৪’র ম্যাচ শেষে স্বল্প সময়ের জন্য তাদের দু’জনকে কথাও বলতে দেখা গেছে। মাঠের দ্বৈরথ মাঠেই রেখে আসার ফুটবলীয় চেতনাকেই যেন তুলে ধরলেন পিএসজি ও বার্সেলোনার দুই তারকা।

আরও পড়ুন: পেনাল্টি মিসের পরও দুর্দান্ত জয়ে শেষ ষোলোয় আর্জেন্টিনা

/এম ই





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply