জিতেও হেরে গেলো মেক্সিকো

|

ছবি: সংগৃহীত

আর্জেন্টিনা ২-০ গোলে জেতায় মেক্সিকোর সামনে দাঁড়ায় ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয়ের সমীকরণ। কিন্তু সৌদি আরবের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে জয় তুলে নিয়ে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিতে হলো মেক্সিকোকে। ম্যাচের শুরু থেকেই মাঠে নিজেদের আধিপত্য ধরে রাখলেও প্রথমার্ধে কোনো গোল পায়নি মেক্সিকো। তবে, দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই কাটে গোলখরা। ৪৭ মিনিটে হেনরি মার্টিন ও ৫২ মিনিটে শ্যাভেজের গোলে এগিয়ে যায় মেক্সিকানরা।

তবে চেষ্টা কম করেনি আর্জেন্টিনাকে প্রথম ম্যাচে হারিয়ে আলোড়ন তৈরি করা সৌদি আরব। ম্যাচের শুরুতেই দারুণ এক পাসে মোহাম্মেদ কানোকে বল এগিয়ে দেন সৌদি অধিনায়ক আল দাওসারি। তবে এই পাসের কোনো অ্যাডভান্টেজ নিতে পারেননি মোহাম্মেদ কানো। এছাড়া প্রথমার্ধে আরও বেশকিছু সম্ভাবনা তৈরি করেছিলো সৌদি ফুটবলাররা। কিন্তু, কোনোবারই তারা বল জড়াতে পারেননি মেক্সিকোর জালে।

প্রথমার্ধে ৬৮ শতাংশ বল ছিলো মেক্সিকানদের দখলে। এ সময় সৌদিদের গোলমুখে মোট ১১টি শট নিয়েছিলো তারা, যার মধ্যে অন টার্গেট ছিল মাত্র ৩টি। অপরদিকে, ৩২ শতাংশ বল দখলে রেখে মেক্সিকানদের গোল মুখে মোটে চারটি শট নিয়েছিলেন দাওসারিরা। যারমধ্যে মাত্র একটি শট ছিল অন টার্গেট।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই হেনরি মার্টিনের গোলে এগিয়ে যায় মেক্সিকো। ম্যাচের ৪৬ মিনিটে করা আক্রমণ থেকে কর্নার পায় মেক্সিকো। মন্টেসের নেয়া কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে মেক্সিকানদের এগিয়ে নেন মার্টিন।

এরপর, ৫২ মিনিটে ৩০ ইয়ার্ড দূরত্ব থেকে নেয়া শ্যভেজের চোখ ধাঁধানো বাম পায়ের ফ্রি কিকে ব্যবধান দ্বিগুন করে মেক্সিকো। এ বিশ্বকাপে এটি ফ্রি কিক থেকে আসা দ্বিতীয় গোল। প্রথম গোলটি পেয়েছিলেন মার্কাস র‍াশফোর্ড, ওয়েলসের বিপক্ষে।

ম্যাচের ৭৩ মিনিটে আরও একটি সম্ভাবনাময় ফ্রি কিক নেন শ্যাভেজ। তবে গোলরক্ষক আলো ওয়াইসের দক্ষতায় সে যাত্রা রক্ষা পায় রেনার্ড শিষ্যরা। এরপর খেলার শেষ পর্যন্ত, গোলের জন্য একের পর এক আক্রমণ দিয়ে সৌদি রক্ষণকে ব্যতিব্যস্ত রাখেন মেক্সিকান অ্যাটাকাররা। ম্যাচের ৮৫ মিনিটে তৃতীয় গোলও পেয়ে যায় মেক্সিকো তবে অফসাইডের বাধায় গোলটি বাতিল করা হয়। এমনকি, ৯০ মিনিট শেষেও আক্রমণ অব্যাহত রাখে এল ট্রিরা।

কিন্তু, নাটক তখনও বাকি ছিল! ৯৫ মিনিটে আল দাওসারির গোলে ব্যবধান কমায় সৌদি আরব। আর এই গোলে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হয় পোল্যান্ডের।

/এসএইচ/আরআইএম





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply