প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের পর গায়ে আগুন লাগিয়ে হত্যার অভিযোগ

|

প্রতীকী ছবি

ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা এলাকায় প্রতিবন্ধী নারীকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ, ওই নারীকে ধর্ষণের পর গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। গুরুতর আহত ওই নারী মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

জানা গেছে, সোমবার (২৮ নভেম্বর) রাত ১০টার দিকে কেরানীগঞ্জের শুভাঢ্যা সাবান ফ্যাক্টরি সড়ক এলাকা থেকে দগ্ধ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইন্সটিটিউটে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছেন, তাকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যা করেছে।

নিহতের বোন বলেন, আমার বোন বাক প্রতিবন্ধী ছিল। এখনও বিয়ে হয়নি। তার তো কোনো শত্রু থাকার কথা না। কিন্তু কেনো তাকে খুন করলো, কারা খুন করলো? ওর কাছ থেকে টাকা-পয়সা, গয়না সব লুট করে নিয়ে গেছে। সেগুলো নিয়ে যাক; কিন্তু আমার বোনকে কেনো মেরে ফেললো? আমরা এই হত্যার বিচার চাই।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি শাহ জামান বলেন, মেডিকেল রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত ধর্ষণের বিষয়টি সম্পর্কে পরিষ্কারভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে আগুনে পুড়ে তিনি মারা গেছেন। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এএআর/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply