চীনে বিক্ষোভ পরিস্থিতি: রাজধানীসহ বড় শহরগুলোয় বেড়েছে পুলিশের উপস্থিতি

|

চীনে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক দমন-পীড়নের প্রস্তুতি নিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এরইমধ্যে রাজধানী বেইজিংসহ গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোয় কড়া প্রহরায় পুলিশের বিশাল বহর। খবর এপির।

বিক্ষোভ-আন্দোলনের জন্য ব্যবহৃত এলাকাগুলো বর্তমানে পুরোপুরি ফাঁকা। অনেক পরিবারের দাবি, বিক্ষোভের সাথে সদস্যরা জড়িত; এমন সন্দেহে বাড়ি বাড়ি খোঁজখবর নিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। সরকারের গৃহীত ‘জিরো কোভিড’ নীতিমালার বিরুদ্ধে গেলো শনিবার থেকে বেড়েছে জনরোষ।

চীনের বাসিন্দাদের অভিযোগ, করোনার বিস্তাররোধে অযৌক্তিক লকডাউন দিয়ে রাখছে প্রশাসন। যা তাদের জীবনযাপন এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের ওপর ফেলছে নেতিবাচক প্রভাব। ক্ষুব্ধ চৈনিকদের আন্দোলনকে সমর্থন যুগিয়েছে বিশ্বের অন্যান্য দেশও। জানিয়েছে, শুধু চীন নয়, কঠোর নীতিমালার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত বৈশ্বিক বাণিজ্য।

সম্প্রতি, দেশটিতে দৈনিক করোনা সংক্রমণ রেকর্ড ছাড়িয়েছে। সেটি নিয়ন্ত্রণে সরকার কঠোর বিধিমালা আরোপের ঘোষণা দিলেই ক্ষোভে ফুঁসে উঠেন সাধারণ মানুষ।

/এমএন





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply