ইকুয়েডরকে কাঁদিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো শেষ ষোলোয় সেনেগাল

|

ছবি: সংগৃহীত

ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপে রাউন্ড অব সিক্সটিনথ নিশ্চিত করেছে তেরেঙ্গার সিংহ খ্যাত সেনেগাল। নাটকীয়পূর্ণ ম্যাচে সার ও কৌলিবালির গোলে ২০ বছর পর শেষ ষোলোয় এর যায়গা নিশ্চিত করেছে সেনেগাল। ২-১ গোলে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নেয় ল্যাতিন আমেরিকার দল ইকুয়েডর।

কাতারের আল রাইয়ানের খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হয় ইকুয়েডর-সেনেগাল। ইকুয়েডর ড্র করলেই চলে যাবে রাউন্ড অব সিক্সটিনথে তবে, পরবর্তী রাউন্ডে যেতে হলে জয়ের বিকল্প নেই সেনেগালের। এমন সমীকরণের ম্যাচে শুরু থেকে আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে খেলতে থাকে দুই দল।

ম্যাচের ৩ মিনিটেই সেনেগাল ডিফেন্ডার জ্যাকবস দারুণ সুযোগ পায়। তবে গোল পোস্টে বল রাখতে পারেননি তিনি। এর মিনিট পাঁচেক পর আবারও সহজ সুযোগ পায় সেনেগাল স্ট্রাইকার সার, তিনিও গোল করতে ব্যর্থ হন।

ম্যাচের ১২ মিনিটে ইকুয়েডর কাউন্টার অ্যাটাকে সহজ সুযোগ পেয়েও গোল করতে ব্যর্থ হন। ইস্তুপিনিয়ানের জোড়ালো শট ফিরিয়ে দেন সেনেগাল গোলরক্ষক মেন্ডি।

ম্যাচের ৪২ মিনিটে পেনাল্টি পায় সেনেগাল। সেনেগাল স্ট্রাইকার সারকে ডি বক্সের ভিতরে ফাউল করে বসেন ইকুয়েডর ডিফেন্ডার প্রেসিওদো। পেনাল্টি স্পট থেকে দলকে এগিয়ে নিতে ভুল করেননি স্ট্রাইকার সার। তার নিখুঁত শটে বল জালে জড়ায়। এর ফলে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় সেনেগাল।

প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হওয়ায় ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় সেনেগাল।

১-০ গোলে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকেই আক্রমণ চালাতে থাকে ইকুয়েডর। মুহুর্মুহু আক্রমণ চালাতে থাকার পড়েও বারবার ব্যর্থ হন সেনেগাল গোলরক্ষক মেন্ডির কাছে। তার অসাধারন নৈপুণ্যে সেনেগালকে লিড ধরে রাখতে সাহায্য করে।

ম্যাচের ৬৮ মিনিটে ফেলিক্স তোরেসের বাড়ানো বলে ল্যাতিনদের সমতায় ফেরান কাইসেদো। পুরো সেনেগাল সমর্থকদের স্তব্ধ করে দলকে ম্যাচে ফেরান এই মিডফিল্ডার। তবে, ইকুয়েডরকে সেই আনন্দ দীর্ঘায়িত করতে দেননি সেনেগাল অধিনায়ক কৌলিবোলি। ৩ মিনিটের মদ্ধেই সেনেগালকে এগিয়ে দেন এই ডিফেন্ডার। ফ্রি কিক থেকে বল পেয়ে জোরালো শটে ইকুয়েডর গোলরক্ষককে প্রতিহত করে বল জালে জড়ান কৌলিবোলি।

কৌলিবোলির গোলেই আনন্দে ভাসে সেনেগাল সমর্থকেরা। ২-১ গোলে পিছিয়ে পড়ে মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে ইকুয়েডর। তবে কাজের কাজ করতে পারেননি ইকুয়েডরের খেলোয়াড়রা। শেষ পর্যন্ত আর কোনো গোল না হওয়ায় ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে সেনেগাল। এই ফলে দ্বিতীয় রাউন্ড নিশ্চিত হয় তেরেঙ্গার সিংহদের। এই ম্যাচ হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় ঘণ্টা বেজে যায় ইকুয়েডরের।

/আরআইএম





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply