রক্তপাত ও নৈরাজ্যের আশঙ্কায় পদযাত্রা বাতিলের ঘোষণা ইমরান খানের

|

ইসলামাবাদের পথে লংমার্চ চললে নৈরাজ্য ও রক্তপাত হতে পারে। তাই আপাতত রাজধানী অভিমুখে পদযাত্রা বাতিলের ঘোষণা দিলেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। খবর রয়টার্সের।

গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর শনিবার (২৬ নভেম্বর) রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথমবারের মতো জনসমাবেশে যোগ দেন বিরোধী নেতা ইমরান। সরকারের তরফ থেকে নিরাপত্তা ঝুঁকির কথা বলা হলেও, তা উপেক্ষা করে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অংশ নেন পিটিআই নেতাকর্মীরা।

ইমরান বলেন, যে তিনজনের বিরুদ্ধে ওয়াজিরাবাদে তিনি হত্যাচেষ্টার অভিযোগ করেছেন তারা আবারও তাকে গুলি করার অপেক্ষায় আছে। পিটিআই চেয়ারম্যান বলেন, তিনি মৃত্যুর খুব কাছে ছিলেন কিন্তু তার বিশ্বাস ছিলো আল্লাহ তাকে রক্ষা করবেন। আরও বলেন, ইতিহাস সাক্ষী দিবে, ইমরান দেশের জন্য শেষ বল পর্যন্ত লড়াই করেছে। এসময় সাংবাদিক ও পিটিআই সমর্থকদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ তোলেন ইমরান খান। পুরোপুরি সুস্থ হতে আরও ৩ মাস সময় লাগবে বলেও জানান তিনি।

আয়োজকরা বলছেন, শনিবারের সমাবেশে জড়ো হয় ইমরানের ২৫ থেকে ৩০ হাজার সমর্থক। ভাষণে, প্রাদেশিক ও প্রশাসনিক দু’টি ইউনিট থেকে পিটিআই সদস্যদের পরিকল্পনার কথা জানান ইমরান। আগাম নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন চলবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন। ইমরান বলেন, এখনও চলছে তাকে হত্যাচেষ্টার পরিকল্পনা। আবারও দায়ী করেন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরীফ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ ও শীর্ষ এক সামরিক কর্মকর্তাকে।

এটিএম/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply