গুহা থেকে উদ্ধারকৃত ফুটবলারদের বিষয়ে কঠোর গোপনীয়তা

|

থাইল্যান্ডের চিয়াং রাই প্রদেশের দুর্গম গুহা থেকে প্রথম দফায় উদ্ধার হওয়া চার কিশোরকে তাদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না। এমনকি উদ্ধার হওয়া কিশোরদের পরিচয় এবং তাদের কোথায় রাখা হয়েছে সে বিষয়েও কোনো তথ্য দিচ্ছে না থাই কর্তৃপক্ষ। এর ফলে স্বজনরাও নিশ্চিত হতে পারছেন না ঠিক কোন চারজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিস্তারিত তথ্য জানতে চেয়ে বারবার কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেও নিরাশ হয়েছেন তারা।

তবে চিয়াং রাই প্রদেশের গভর্নর নারংসাক অসোতানাকর্ন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, উদ্ধার হওয়া কিশোররা ভালো আছেন, সুস্থ আছেন। তারা বেশ উৎফুল্ল। কিশোররা থাইল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী খাবার ‘প্যাড ক্রাপাও’ খেতে চেয়েছে।

‘প্যাড ক্রাপাও’ মূলত বাসিল ও মুরগীর মাংস দিয়ে রান্না করা একটি বিশেষ রেসিপি।

গভর্নর নারাংসাক আরো জানান, দীর্ঘদিন ধরে গুহার মধ্যে স্যাঁতস্যাঁতে পরিবেশে থাকায় কিশোরদের ফুসফুসে সংক্রমণ হতে পারে। একই সঙ্গে বাদুড় এবং ইঁদুর থেকে ছড়ানো জীবাণুর কারণে জন্ডিস এবং লিভারের সমস্যা হতে পারে। এসব কারণে ডাক্তারদের পরামর্শে কিশোরদের সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের যোগাযোগ করতে দেয়া হচ্ছে না। পরে সংক্রমণের ঝুঁকি কেটে গেলে পরিবারের সদস্যদের কিশোরদের সঙ্গে যোগাযোগের অনুমতি দেয়া হবে।

কিশোরদের বিষয়ে কঠোর গোপনীয়তার বজায় রাখা হচ্ছে। কারণ হিসেবে জানা গেছে, কিশোরদের সিংহভাগ এখনও গুহার মধ্যে রয়েছে। এ নিয়ে নেতিবাচক মনোভাব তৈরি হতে পারে এ আশঙ্কায় উদ্ধার হওয়াদের পরিচয় প্রকাশ করা হচ্ছে না।

উল্লেখ্যে, গত ২৩ জুন ঘুরতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছিলেন ১২ জন কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচ। ২ জুলাই তাদের খুঁজে পায় ব্রিটিশ ডুবুরিদের একটি দল। এরপর থেকে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে থাই কর্তৃপক্ষ। গতকাল থেকে এখন পর্যন্ত মোট পাঁচ কিশোরকে উদ্ধার করার খবর আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে।

যমুনা অনলাইন: এফএফ/টিএফ









Leave a reply