দিনাজপুরে দুই শিশু সন্তানকে হত্যার দায়ে পিতা আটক

|

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় দুই শিশু সন্তানকে হত্যার অভিযোগে পিতা শরিফুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। অসুস্থ ও অসংলগ্ন কথাবার্তার কারণে তাকে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) সকালে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর একটি পরিত্যক্ত ভবন থেকে দুই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

পরিবার ও স্বজনরা জানিয়েছে, শরিফুল স্ত্রী উম্মে কুলসুমকে নিয়ে সুন্দর জীবনের প্রত্যাশায় ঢাকায় পাড়ি জমায়। ঢাকায় যাওয়ার আগে শরিফুল আসবাবপত্রসহ ঘরের টিনের চালা পর্যন্ত বিক্রি করে সকল টাকা সাথে নিয়ে যায়। এরপর শরিফুলের স্ত্রী কুলসুম সব টাকা হাতিয়ে নিয়ে অন্য একজনকে বিয়ে করেশরিফুলকে তালাকনামা পাঠিয়ে দেয়।

এরপর ঢাকা থেকে এলাকায় ফিরে কাপড় কেনার কথা বলে শরিফুল সাত ও তিন বছরের দুই সন্তানকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। রাতে ফোন করে তার বড় ভাইয়ের স্ত্রীকে সন্তানদের হত্যার করে নিজে বিষ পান করেছে বলে জানায়। সকালে শরিফুলের কথা মত স্কুলে গিয়ে তার দুই শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এরপর থেকেই শরিফুলকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পুলিশের ছয়টি টিম ব্যাপক তল্লাশি চালিয়ে কয়েক কিলোমিটার দূরে মঙ্গলপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের সময় তাকে কিছুটা অসুস্থ ও অসংলগ্ন কথাবার্তার কারণে তাৎক্ষণিকভাবে দিনাজপুরের এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
এনবি/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply