ফোনে অন্য মেয়ের কণ্ঠ, ক্ষোভে প্রেমিকের বাড়িতে আগুন দিলেন প্রেমিকা

|

ফোনের ওপাশ থেকে অন্য মেয়ের কণ্ঠ শুনতে পেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন এক তরুণী। টেক্সাসের বাসিন্দা ওই তরুণীর নাম সেনাইডা ম্যারি সোতো। খবর টাইম নিউজের।

সম্প্রতি চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে। খবরে বলা হয়েছে, ম্যারি রাতে তার প্রেমিককে ফোন করলে ওপাশ থেকে কোনো এক নারী সেই ফোন রিসিভ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হন তিনি। গভীর রাতেই হাজির হন প্রেমিকের বাড়িতে। তারপর আগুন ধরিয়ে দেন সোফায়। আগুনের সেই দৃশ্য প্রেমিককে দেখান ভিডিও কলে। পরে সোফা থেকে গোটা বাড়িতে আগুন ধরে যায়। এ ঘটনায় ২৩ বছরের ওই তরুণীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। খবর পিএ হোম পেজের।

প্রেমিকের পরিবারের অভিযোগ, বাড়ি থেকে মূল্যবান বেশ কিছু জিনিস উধাও হয়ে গেছে। ম্যারি ওই জিনিসগুলো চুরি করেছেন। চুরি ও আগুন লাগানোর অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ম্যারি গত সপ্তাহের এক রাতে তার প্রেমিককে ভিডিও কল দেন। অপর পাশ থেকে এক নারী সেই ফোন ধরেন। প্রেমিকের ফোনে অন্য মেয়ের গলা শুনতে পেয়েই ফোন কেটে দেন ম্যারি। পরে মধ্যরাতে প্রেমিকের পৈত্রিক বাড়িতে হাজির হয়ে অগ্নিসংযোগ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গোটা বাড়িটি পুড়ে যাওয়ায় প্রায় ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে প্রেমিক জানিয়েছেন, ম্যারি ছাড়া অন্য কোনও নারীর সঙ্গে সম্পর্ক নেই তার। যে নারী ফোন ধরেছিলেন, তিনি তার আত্মীয়।

এএআর/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply