উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে চলচ্চিত্র নির্মাণের আহবান প্রধানমন্ত্রীর

|

উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে নির্মাতাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বলেন, সমাজ পরিবর্তনে চলচ্চিত্র বড় ভূমিকা রাখতে পারে।

রোববার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। আশির দশকের সিনেমাজগত কাঁপানো চলচ্চিত্র অভিনেতা ফারুক ও অভিনেত্রী ববিতা এবারের আসরে আজীবন সম্মাননার পদক পেয়েছেন।

চলচ্চিত্র শিল্পে কাজের সবচেয়ে বড় স্বীকৃতি ধরা হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারকে। প্রত্যেক অভিনয় শিল্পীর স্বপ্ন এই পুরস্কার অর্জন। দর্শক তুষ্টি আর সমালোচকদের বিশ্লেষণ থেকেই বাছাই করা হয় সেরাদের। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ৪২তম আসরে ২৫টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেয়া হয়।

আয়নাবাজি চলচ্চিত্র ৭টি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে। সেরা পরিচালক হয়েছেন অমিতাভ রেজা চৌধুরী, সেরা অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী।

সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার জিতেছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম প্রযোজিত তৌকীর আহমেদের চলচ্চিত্র ‘অজ্ঞাতনামা’। শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর পুরস্কার যৌথভাবে পেয়েছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা (অস্তিত্ব), কুসুম শিকদার (শঙ্খচিল)।

পার্শ্ব চরিত্রে সেরা অভিনেতা হয়েছেন আলীরাজ এবং ফজলুর রহমান বাবু। একই ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী তানিয়া আহমেদ। শ্রেষ্ঠ খলনেতার চরিত্রে স্বীকৃতি পেয়েছেন শহীদুজ্জামান সেলিম। সেরা শিশুশিল্পী আনুম রহমান খান সাঁঝবাতি। সঙ্গীত পরিচালক ও সুরকারের দুটি পদকই পেয়েছেন ইমন সাহা। শ্রেষ্ঠ গায়ক ওয়াকিল আহমেদ, গায়িকা মেহের আফরোজ শাওন।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুরস্কার প্রাপ্তদের অভিনন্দন জানান। চলচ্চিত্র শিল্পের উন্নয়নে সরকারের বিভিন্ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন তিনি। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সংগ্রাম তুলে ধরার ওপরও গুরুত্ব দেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের পর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল রুমে খ্যাতিমান শিল্পীদের বর্ণাঢ্য পরিবেশনায় দর্শকরা উপভোগ করেন বাংলা চলচ্চিত্রের গান, নাচ আর সংলাপ।

যমুনা অনলাইন: এফএম/টিএফ









Leave a reply