সহপাঠীকে ইভটিজিং করায় ৩ ছাত্র আটক

|

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

রাজবাড়ী সদর উপজেলার বসন্তপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির তিন ছাত্রীকে উত্যক্তের দায়ে তিন ছাত্রকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার (৮ জুলাই) দুপুর ১ টার দিকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, ফরিদপুর সদর উপজেলার ঈশান গোপালপুর ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের আকবর মোল্লার ছেলে রব্বানী মোল্লা, একই গ্রামের আলম মৃধার ছেলে নাজমুল মৃধা ও চাঁদপুর গ্রামের কেছমত শেখের ছেলে হাছান শেখ। এরা তিনজনই বসন্তপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র।

উত্যক্তের শিকার তিন ছাত্রী জানায়, স্কুলে আসা যাওয়ার পথে তিন বখাটে সহপাঠী রব্বানী, নাজমুল ও হাছান আমাদের প্রায়ই উত্যক্ত করতো। শনিবার (৭ জুলাই) দুপুরে আমরা স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই বখাটেরা আমাদের বিভিন্ন অশ্লীল কথাবার্তা বলে উত্যক্ত করে। রোববার (৮ জুলাই) সকালে আমরা স্কুলে এলে বখাটেরা আবারও আমাদের উত্যক্তের চেষ্টা করে। এ সময় আমাদের মধ্যে একজনের ছোটভাই একই স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্র ওই তিন বখাটেকে আমাদের উত্যক্ত করতে নিষেধ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বখাটেরা আমাদের ওই ছোটভাইকে স্কুলের ক্লাসরুমের মধ্যে মারধর করে। পরে আমরা এ ঘটনার বিচার চেয়ে স্কুলের প্রধান শিক্ষক বরাবর লিখিত অভিযোগ দেই।

বসন্তপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আদেল উদ্দিন মোল্লা বলেন, ছাত্রীদের অভিযোগ পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ওই তিন বখাটে ছাত্রকে ক্লাসরুমে আটকে রেখে পুলিশ ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের খবর দেওয়া হয়। পরে পুলিশ এসে ম্যানেজিং কমিটির সদস্যদের উপস্থিতিতে তিন বখাটেকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

খানখানাপুর পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মোঃ শহিদুল ইসলাম জানান, বসন্তপুর কো-অপারেটিভ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির তিন ছাত্রীকে উত্যক্তের দায়ে একই শ্রেণির তিন ছাত্রকে আটক করে সদর থানায় পাঠানো হয়েছে। অভিযুক্ত ছাত্ররা তাদের দোষ স্বীকার করেছে। এ বিষয়ে পরবর্তী আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply