বলিউডের ধনী অভিনেত্রীরা

|

ছবি: সংগৃহীত

বলিউডে অভিনেতাদের চেয়ে অভিনেত্রীদের পারিশ্রমিক তুলনামূলক কম। তারপরও অনেক অভিনেত্রী তাদের জনপ্রিয়তার কারণে মোটা অঙ্কের পারিশ্রমিক পান। এছাড়া বিজ্ঞাপন, ব্যবসা ও বিভিন্ন কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হয়ে আয় করেন তারা। তাদের জনপ্রিয়তা বা পারিশ্রমিক নেহায়েত কম নয়।

বলিউডের শীর্ষ ধনী অভিনেত্রী হিসেবে স্বীকৃত ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন। সাবেক এ বিশ্বসুন্দরী তার সৌন্দর্য আর অভিনয়দক্ষতা দেখিয়ে আসছেন দুই যুগের বেশি সময় ধরে। অনেক ব্যবসাসফল সিনেমার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বেশ কয়েকটি কোম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর তিনি। তার আয়ের বেশিরভাগই সেখান থেকে এসেছে। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১০০ মিলিয়ন ডলার। ভারতসহ সংযুক্ত আরব আমিরাতে বেশ কয়েকটি বিলাসবহুল বাড়ি ও জায়গা আছে এ অভিনেত্রীর।

৪১ বছর বয়সী কারিনা কাপুর খান দুই দশকের বেশি সময় রাজত্ব করছেন বলিউডে। এই বয়সেও তার ফিটনেস দেখে মুগ্ধ সবাই। বর্তমানে ১৫টির বেশি ব্র্যান্ডের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর কারিনা। তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ ৬০ মিলিয়ন ডলার।

বলিউডের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক নেয়া অভিনেত্রীদের একজন দীপিকা পাড়ুকোন। তার মোট সম্পদের পরিমাণ ৪০ মিলিয়ন ডলার। প্রতি সিনেমায় ১৫–২০ কোটি রুপি পারিশ্রমিক নেন দীপিকা। ভারত তো বটেই, ভারতের বাইরের অনেক প্রসাধন কোম্পানির শুভেচ্ছাদূত তিনি।

আনুশকা শর্মাকে বলা হয় বলিউডের সফল অভিনেত্রী। মাতৃত্বকালীন বিরতি কাটিয়ে সম্প্রতি আবারও কাজে ফিরেছেন তিনি। কয়েক বছর আগে প্রযোজক হিসেবেও আত্মপ্রকাশ করেছেন মিসেস কোহলি। তৈরি করেছেন নিজের ফ্যাশন হাউস। বেশ কিছু বড় কোম্পানিরও ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর তিনি। শাহরুখ খানের সাথে জুটি বেঁধে বলিউডে অভিষেক হওয়া এ অভিনেত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ ৪৬ মিলিয়ন ডলার।

বলিউডের পর হলিউডেও নিজের দ্যুতি ছড়াচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। অভিনয় করেছেন একাধিক হলিউড সিনেমায়। এ বছরের শুরুতে মা হওয়া এ সাবেক বিশ্বসুন্দরীর সম্পদের পরিমাণ ৭০ মিলিয়ন ডলারের বেশি। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি একজন সফল ব্যবসায়ীও। চলচ্চিত্র প্রযোজনা, প্রসাধন কোম্পানি, রেস্তোরাঁসহ নানা ধরনের ব্যবসায় যুক্ত রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা।

বিশ্বজুড়ে বলিউড নায়িকারা কোটি দর্শকের মন জয় করে নিয়েছেন। দিন দিন আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে হিন্দি সিনেমার দখল। নাচে গানে ভরপুর হিন্দি সিনেমার পর্দার গ্ল্যামার ধরে রাখার ক্ষেত্রে নায়িকারা অগ্রগামী হলেও নায়কদের তুলনায় তাদের আয়ের অঙ্কটা বেশ নিচের দিকেই। তবু এখন দিন বদলাচ্ছে। শুধুমাত্র নিজেদের নামের জোরেই তাদের সিনেমা হচ্ছে সুপারহিট। খুব শিগগিরই হয়তো পারিশ্রমিকেও বদল আসবে।

/এসএইচ





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply