অফিস সহায়কের হামলায় হাবিপ্রবির ৫ শিক্ষক আহত

|

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, দিনাজপুর :

এক অফিস কর্মচারীর আক্রমণে দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষক গুরুতর আহত হয়েছেন। বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হাবিপ্রবি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে এ ঘটনাটি ঘটে।

বিভাগীয় চেয়ারম্যানসহ আহত সকল শিক্ষক দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অভিযুক্ত অফিস সহায়ক তাজুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে। ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কামরুজ্জামান মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আহত সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক রোকনুজ্জামান রনি বলেন, বুধবার সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের নিয়ে শিক্ষা সফরের কথা ছিল। এই শিক্ষা সফরে ছাত্রছাত্রীদের সাথে দু’জন শিক্ষকও যাওয়ার কথা ছিল। তাই সকাল নয়টার সময় সকল ছাত্র-ছাত্রী এবং শিক্ষকরা উপস্থিত হলেও অফিস সহায়ক তাজুল ইসলাম বিলম্ব করায় তাকে মোবাইল করে দ্রুত অফিসে আসার জন্য নির্দেশ প্রদান করি। তখন তাজুল মোবাইলে খারাপ আচরণ করে লাইন কেটে দেয়। এর কিছুক্ষণ পর অফিসে আসলে মোবাইল কেটে দেয়ার কারণ জানতে চাইলে সে উত্তেজিত হয়ে পানি খাওয়ার গ্লাস ভেঙ্গে মাথায় আঘাত করে। হট্টগোল শুনে এগিয়ে আসা অন্যান্য শিক্ষকদের ওপরও হামলা চালায় সে।

আহত শিক্ষকরা হলেন, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক রোকনুজ্জামান রনি, সহযোগী অধ্যাপক বেলাল হোসেন, প্রভাষক নির্মল চন্দ্র রায়, প্রভাষক হারুনুর অর রশিদ ও প্রভাষক মাহবুব রহমান।

হাবিপ্রবি রেজিস্ট্রার ড. সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত স্বারকে অভিযুক্ত কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুযায়ী স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করার জন্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দীন সরকারকে প্রধান করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের আলোকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে।

ইউএইচ/





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply