চিঠি দিয়ে বাবা-মাকে সান্ত্বনা আটকে পড়া কিশোরদের

|

থাইল্যান্ডের দুর্গম গুহায় আটকে পড়া কিশোর ফুটবল দলকে উদ্ধারে প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তবে ১৪ দিন পার হলেও নেই তেমন কোনো অগ্রগতি। কিশোররা শারীরিক এবং মানসিকভাবে সুস্থ থাকলেও এখনো তৈরি হয়নি তাদের বের করে আনার মতো পরিবেশ। ভারি বর্ষণের পূর্বাভাসে চিন্তিত উদ্ধারকারীরা। তবে কিশোরদের তরফ থেকে তাদের বাবা-মা’কে চিঠি দিয়েছেন ফুটবল দলের কোচ। জানিয়েছেন, ভালো আছে সবাই।

সন্ধান মিললেও ২ সপ্তাহ শেষে এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি থাইল্যান্ডের দুর্গম গুহায় আটকে পড়া কিশোর ফুটবল দলের ১৩ সদস্যকে। তবে পৌঁছানো হচ্ছে খাবার, অক্সিজেনসহ প্রয়োজনীয় নানা সরঞ্জাম। সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে স্থানীয় বিভিন্ন কমিউনিটি।

সবচেয়ে বড় বিষয় এখনও এমন দুর্গম পরিবেশে মানসিকভাবে যথেষ্ট শক্ত রয়েছে কোমলমতি এ কিশোররা। তাইতো পাহাড়ের গুহা থেকে চিঠি লিখে উল্টো সান্ত্বনা দিয়েছে বাবা-মাকে।

চিঠিতে কিশোররা বলেন, প্রিয় বাবা মা, আমরা এখানে ভালো আছি। আমাদের জন্য চিন্তা করো না। উদ্ধারকারীরা আমাদের জন্য যথেষ্ট চেষ্টা করছে। কথা দিচ্ছি, এখানে আটকা পড়া সবাইকে দেখে রাখবো। আমাদের সহযোগিতায় এগিয়ে আসার জন্য ধন্যবাদ।

উদ্ধারকারীরা জানান, ভারি বৃষ্টির আশঙ্কায় সেচসহ বিভিন্ন পদ্ধতিতে উদ্ধার অভিযান চালানো হচ্ছে। তবে গুহা থেকে এখনও কিশোরদের বের করার মতো পরিবেশ তৈরি হয়নি।

মিশন কমান্ডার নারোংসাক ওসোত্তানকোন বলেন, আমি প্রতিদিনই কিশোরদের সাথে কথা বলছি। তাদের উদ্ধারে ন্যূনতম ঝুঁকিও নিতে চাই না। বিভিন্ন উপায়ে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। আরও অপেক্ষা করতে চাই, তবে বৃষ্টির আশঙ্কা ভাবাচ্ছে আমাদের।

তবে উদ্ধার অভিযান চলাকালে থাই নেভি-সিল দলের সাবেক এক কর্মকর্তার মৃত্যুর ঘটনা ভাবিয়ে তুলেছে সবাইকে।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply