পাবনায় মা-ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা

|

পাবনার বেড়ায় মা, ছোট ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বুধবার ভোরে বাড়ির উঠোনে তাদের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন এলাকাবাসী। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে ঐ বাড়ির বড় ছেলে তুহিন। পারিবারিক সমস্যার কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে থাকতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

নিহতরা হলেন স্থানীয় মিঠুর স্ত্রী বুলি খাতুন (৪০) ও তার ছেলে তুষার (১০) এবং বক্কারের স্ত্রী লসিমন (৪৫)। ঘটনার পর থেকে মিঠুর বড় ছেলে তুহিন পলাতক রয়েছে। বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোজাফ্ফর হোসেন জানান, পুলিশের ধারনা মিঠুর বড় ছেলে মাদকাসক্ত তুহিন পারিবারিক কলহের জেরে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।

পাবনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাস জানান, রাতে খাবার খেয়ে একই ঘরে মা, ছোট ছেলে ও খালা ঘুমিয়ে ছিলেন। পাশের ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন তুহিন ও তার স্ত্রী রুনা। ধারণা করে হচ্ছেম ভোর ৪টার দিকে পাশের ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মা’সহ ৩ জনকে কুপিয়ে হত্যা করে তুহিন। এ ঘটনার পর থেকে ছেলে পলাতক রয়েছেন। নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান তিনি।

তুহিনের স্ত্রী রুনা আকতার জানান, তুহিন টাইফয়েডে আক্রান্ত হয়ে মানসিক বিকারগ্রস্থ ছিলেন।

যমুনা অনলাইন: এফএফ/টিএফ









Leave a reply