শ্রেণিকক্ষে হেসে ফেলায় ছাত্রীকে বেত্রাঘাত

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর:
মাদারীপুরে শ্রেণিকক্ষে দুষ্টামি করায় ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বেত্রাঘাতের অভিযোগ উঠেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষিকার বিরুদ্ধে। বেত্রাঘাতে স্কুল ছাত্রীর চোখে আঘাত লাগে। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে শহরের দরগাখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। আহত সম্পা শহরের পানিছত্র এলাকার সিরাজুল হক হাওলাদারের মেয়ে ও ওই বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে পরিবারকে প্রভাবশালী একটি মহল চাপ দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন সম্পার পরিবার।

পরিবারের অভিযোগ, দুপুরে বিদ্যালয়ের বিরতির পরে শ্রেণিকক্ষে ক্লাস নিতে প্রবেশ করেন শিক্ষিকা রত্মা আক্তার। শ্রেণিকক্ষে উপস্থিত থাকা সকলে দাঁড়িয়ে শিক্ষিকা সম্মান প্রদর্শন করে। এ সময় ৫ম শ্রেণির ছাত্রী সম্পা আক্তার (১১) দুষ্টুমি করে হেসে ফেলে। এতে শিক্ষিকা ক্ষিপ্ত হয়ে ওই ছাত্রীকে বেত্রাঘাত করেন। বেত্রাঘাতের এক পর্যায়ে শরীরের ডান চোখে মারাত্মক আঘাত লাগে। পরে গুরুতর অবস্থায় সম্পাকে তার সহপাঠিরা বাসায় নিয়ে আসে। সেখান থেকে পরিবারের লোকজন মাদারীপুর চক্ষু হাসপাতালে ভর্তি করে। সম্পার চোখ দিয়ে এখনো রক্ত ঝড়ছে বলে জানিয়েছেন তার পরিবার।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়েছে পুলিশ। অপরদিকে ঐ শিক্ষিকাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।









Leave a reply