মাঝ পদ্মায় স্পিডবোট ডুবি, নৌযান চলাচল বন্ধ

|

বৈরি আবহাওয়ার কারণে উত্তাল হয়ে উঠেছে পদ্মা নদী। বুধবার (২৭ জুন) সকাল ৯টা থেকে দুর্ঘটনা এড়াতে বন্ধ রাখা হয়েছে লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল। তবে বৈরি আবহাওয়ার মধ্যেই শিমুলিয়া থেকে ২০ জন যাত্রী নিয়ে শামীম এন্টারপ্রাইজের একটি স্পিডবোট কাঁঠালবাড়ী ঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা দিলে মাঝ পদ্মায় ডুবে যায়।
কাঁঠালবাড়ী ও শিমুলিয়া ঘাটের একাধিক সূত্র জানায়, সকাল সোয়া নয়টার দিকে মাঝ পদ্মায় ঢেউয়ের ধাক্কায় যাত্রীবোঝাই বোটটি উল্টে যায়। এ সময় শিমুলিয়া ঘাট থেকে ট্রলার ও স্পিডবোট গিয়ে ডুবে যাওয়া যাত্রীদের উদ্ধার করে ঘাটে নিয়ে আসে। অবশ্য স্পিডবোট ঘাট কর্তৃপক্ষ কোন যাত্রী নিখোঁজ নেই বলে দাবি করেছেন।
 
এদিকে পদ্মায় প্রচণ্ড ঢেউ ও স্রোত বিদ্যমান রয়েছে। শিমুলিয়াগামী ডাম্প ফেরি ল্যান্টিন যাত্রী ও পরিবহন নিয়ে পদ্মার চ্যানেলমুখে নোঙর করে আছে বলে ফেরিতে অবস্থানরত এক যাত্রী মুঠোফোনে জানিয়েছেন।
সাদিক আশ্রাফ নামের ওই যাত্রী জানান, ‘বাতাস থাকায় পদ্মায় প্রচণ্ড ঢেউ রয়েছে। ঢেউ উপেক্ষা করে ফেরিটি চলতে না পারায় চ্যানেলে নোঙর করে রেখেছে।’
বিআইডব্লিউটিএ কাঁঠালবাড়ী ঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন জানান, ‘ঝড়ো বাতাস প্রবাহিত হওয়ায় সকাল ৯টা থেকে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ রয়েছে। এর মধ্যে একটি স্পিডবোট মাঝ পদ্মায় ঢেউয়ের ধাক্কায় ডুবে যায়। শিমুলিয়া ঘাটে যাত্রীদের উদ্ধার করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।’









Leave a reply