নারীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশ ভারত

|

নারীদের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক দেশ হিসেবে উঠে এসেছে ভারতের নাম। দেশটিতে নারীদের ওপর যৌন নির্যাতনের ঘটনায় এতটুকুও রাশ টানা যায়নি। বরং দিন দিন তা লাগাম ছাড়া হয়েছে।

নির্ভয়া কাণ্ড থেকে শুরু করে কাঠুয়া, উন্নাও এবং সাম্প্রতিক রাঁচিতে পাঁচ এনজিও মহিলাকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের ঘটনা প্রমাণ করে দেশটিতে নারীরা কতটা অরক্ষিত। এই সব ঘটনার সুবাদে যুদ্ধ বিদ্ধস্ত সিরিয়া ও আফগানিস্তানকে পিছনে ফেলে ভারত এখন নারী নির্যাতনে প্রথম।

মঙ্গলবার থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন একটি সমীক্ষা প্রকাশ করেছে। সেখানে নারীদের ওপর যৌন নির্যাতনে ভারত এক নম্বরে উঠে এসেছে। ভারতের ঠিক পরেই রয়েছে আফগানিস্তান ও সিরিয়া। তারপর আছে সোমালিয়া ও সৌদি আরব। এছাড়া আরও কয়েকটি এশিয়ার দেশ প্রথম দশে জায়গা করে নিয়েছে। পশ্চিমা দেশগুলির মধ্যে একমাত্র আমেরিকার নাম রয়েছে প্রথম দশে।

২০১১ সালে অনুরূপ একটি সমীক্ষা করে সংস্থাটি। তখনও নারীদের উপর যৌন নির্যাতনে এগিয়ে ছিল এশিয়া ও আফ্রিকার দেশগুলি। তালিকায় নাম ছিল আফগানিস্তান, পাকিস্তান, ভারত, সোমালিয়া ও কঙ্গোর মতো দেশগুলির। সেই সমীক্ষার সাত বছর পরেও ভারতে যে এতটুকুও বদলায়নি পরিস্থিতি তা মঙ্গলবারের সমীক্ষাতে পরিস্কার।

কর্ণাটক রাজ্য সরকারের এক আধিকারিক মঞ্জুনাথ গঙ্গাধর বলেন, ‘নারীদের প্রতি চূড়ান্ত অবহেলা ও অবিচার করা হয় ভারতে। ধর্ষণ, বৈবাহিক ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন, ভ্রুণ হত্যা বহুলাংশে বেড়ে গিয়েছে। উন্নয়নশীল দেশ ভারত স্পেস ও টেকনোলজিতে এগিয়ে চলেছে ঠিকই। কিন্তু এই নারী নির্যাতন আমাদের জন্য লজ্জার।’





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply