রেকর্ড কিন্তু আর্জেন্টিনার পক্ষেই

|

বিশ্বকাপ মানেই যেন আর্জেন্টিনা-নাইজেরিয়া ম্যাচ। মঙ্গলবার সেন্ট পিটার্সবার্গে নিজেদের ৬ষ্ঠ বিম্বকাপে ৫মবার আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে নাইজেরিয়া। এরআগে মোট ৮ দেখায় আর্জেন্টিনার জয় চারটি আর নাইজেরিয়ার জয় পেয়েছে দুই ম্যাচে। তবে বিশ্বকাপে সুপার ঈগলদের বিপক্ষে শতভাগ জয় আলবিসেলেস্তাদের।

১৯৯৪ যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপে প্রথম অংশ নেয় নাইজেরিয়া। প্রথম আসরেই ডি গ্রুপে তাদের প্রতিপক্ষ আর্জেন্টিনা। বিশ্ব মঞ্চে নিজেদের প্রথম মোকাবেলায় নাইজেরিয়া এগিয়ে গেলেও ক্লউদিও ক্যানিজিয়ার জোড়া গোলে জয় পায় ম্যারাডোনার দলই।

সেই শুরু। এরপর বিশ্বকাপ মানেই যেন দু’দলের লড়াই। ৯৪ এরপর ২০০২, ২০১০ সবশেষ ২০১৪ সালেও মুখোমুখি হয়েছে দু দল।

বিশ্বকাপের চার দেখাতেই জয় আর্জেন্টিরা। ১৯৯৪ বিশ্বকাপে ২-১, ২০০২ -এ বাতিতুস্তার গোলে ১-০, দক্ষিণ আফ্রিকায় আলবিসেলেস্তাদের হয়ে গোল করেন গ্যাব্রিয়েল হেইন্জ।

তবে সবশেষ ব্রাজিল বিশ্বকাপের ম্যাচ ছিল সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ। মেসির পর আবু মুসার জোড়া গোল করলে ম্যাচে আসে সমতা। কিন্তু আলবিসেলেস্তাদের জয় নিশ্চিত করেন রোহো।

২০০৫ অনুর্ধ্ব-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালেও মুখোমুখি হয় মেসির আর্জেন্টিনা ও বর্তমান অধিনায়ক ওবি মিকেলের নাইজেরিয়া। সেখানেও জোড়া গোলে আর্জেন্টিনাকে শিরোপা জেতান মেসি।

বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার দাপট থাকলেও এর বাইরে চার দেখায় নাইজেরিয়ার জয় দুটি, হার একটি ও ড্র হয়েছে এক ম্যাচ। সবশেষ ২০১৭ সালে ডিসেম্বরে রাশিয়াতেই প্রস্তুতি ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ৪-২ গোলে হারায় সুপার ঈগলরা।

তাইতো ডি গ্রুপ থেকে শেষ ১৬তে যাওয়ার লড়াইয়ে ছেড়ে কথা বলবে না কেউ। নাইজেরিয়ার বড় শক্তি পাওয়ার ফুটবল আর ইনফর্ম ফরোয়ার্ড আবু মুসা। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিতে প্রস্তুতি ভিক্টর মোজেস ও ইহিয়ানাচো।
তবে মেসি ছন্দে থাকলে কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারেন তা ভালোই জানা আছে সুপার ইগলদের।

আর্জেন্টাইন দলে একাধিক পরিবর্তন আসছে নিশ্চিত। গোলরক্ষক কাবায়েরোর পরিবর্তন নিশ্চিত। আর্জেন্টাইন গনমাধ্যমের দাবি একাদশে ফিরবেন গঞ্জালো হিগুয়েন ও ডি মারিয়া।









Leave a reply