আজ বিশ্ব হিরোশিমা দিবস

|

জাপানের হিরোশিমায় পারমাণবিক বোমা হামলার ৭২ বছর পূর্ণ হলো আজ। ১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট জাপানের হিরোশিমা শহরে পৃথিবীর ইতিহাসে প্রথম পারমাণবিক বোমা হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। বোমার ধ্বংসযজ্ঞে মুহূর্তেই ছাইয়ে পরিণত হয় হিরোশিমা; যার ক্ষতচিহ্ন এখনও বয়ে বেড়াচ্ছে শহরটি। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় হিরোশিমায় নিহতদের স্মরণে প্রতি বছরের মতো এবারও রয়েছে নানা আয়োজন।

৬ আগস্ট, ১৯৪৫; সকাল ৮ টা বেজে ১৫ মিনিট ।  আর দশদিনের মতোই ছিলো জাপানের হিরোশিমার সেদিনের সকালটি। তবে মুহুর্তেই সকালের সেই স্নিগ্ধ আবহাওয়া যেনো নরকে পরিণত হয় ।  মার্কিন যুদ্ধ বিমান  অ্যানোলা গে নিয়ে এসে হাজির হন কর্নেল পল টিবেট। পৃথিবী প্রথমবারের মতো চাক্ষুস করে লিটল বয় পারমাণবিক বোমার বীভৎসতা। ৬৪ কেজি ইউরেনিয়াম দিয়ে তৈরি লিটলবয় ৩১ হাজার ফিট উচ্চতা থেকে মাত্র ৪৪ সেকেন্ডে আঘাত হানে হিরোশিমার সাধারণ মানুষের বসত ভিটায়। মুহুর্তেই মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয় তিন লাখ মানুষের শহরটি। তেজস্ত্রীয়তায় প্রাণ যায় ১ লাখ ৪০ হাজার মানুষের।

ইউরেনিয়ামের সেই তেজস্ক্রিয়তার প্রভাব দীর্ঘদিন ছিলো হিরোশিমা শহরে । যারা শহরটি থেকে পালাতে পেরেছিলো তারাও ভুগতে শুরু করে শ্বাসকষ্ট ও চর্মরোগ সহ নানা জটিলতায়। প্রাণহানি ঘটতে থাকে  বছরের পর বছর ; এমনকি রেহাই পাননি স্বাস্থ্যকর্মীরাও। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ঐ সময়টাতে জাপান এমনিতেই ছিলো কোনঠাসা নিচ্ছিলো আত্মসমর্পণের প্রস্তুতি। ঠিক তার আগে আগে এমন নারকীয় হত্যাযজ্ঞের যৌক্তিকতা নিয়ে আজ ৭২ বছর পরেও খুঁজে ফিরছে বিশ্ববাসী ।

বরাবরের মতো এবারও স্থানীয় সময় রোববার সকাল ৮টা ১৫ মিনিটে হিরোশিমায় বোমা বিস্ফোরণের মুহূর্তটি স্মরণে ঘণ্টা বাজিয়ে শুরু হয় দিনটির কর্মসূচি। এরপর পিস মেমোরিয়াল পার্কে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও এক মিনিট নীরবতা পালন করেন জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাপানে নিযুক্ত দেশ-বিদেশের রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকসহ হাজারও মানুষ।

 

 

 









Leave a reply